Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় স্ত্রী’র কুঁড়ালের আঘাতে স্বামী নিহত

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২১, ৯:৩১ পিএম

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রী ছেলে মেয়েদের দেখতে এসে প্রথম স্ত্রী’র কুঁড়ালের আঘাতে স্বামী মোঃ রুক্কু মিয়া (৩৫) নিহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার গভীর রাতে নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটি ইউনিয়নের কৈলাটি গ্রামে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রুবিনাকে (২৮) আটক করা হয়েছে। নিহত মোঃ রুকু মিয়া নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের লেটিরকান্দা গ্রামের মোঃ সামছুদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের লেটিরকান্দা গ্রামের মোঃ সামছুদ্দিনের ছেলে গার্মেন্টস কর্মী রুক্কু মিয়ার সাথে ১২ বছর পূর্বে কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটি ইউনিয়নের কৈলাটি গ্রামের রুবিনা আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১০ বছর ও ৬ বৎসর বয়সী দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বছর খানেক আগে রুক্কু মিয়া আরেকটি বিয়ে করে তাকে নিয়েই সংসার করছিল। প্রথম স্ত্রী ও মেয়েদের অনুরোধে ঈদের দিন রুক্কু মিয়া শ্বশুর বাড়িতে এসেছিলেন।

নিহতের ছোট ভাই আসাদ মিয়া জানান, বড় ভাই রুক্কু মিয়া লেটিরকান্দায় ঈদ জামাত শেষে বাড়ীতে আসেন। এ সময় প্রথম স্ত্রী ও মেয়েরা তাকে ফোন করে কৈলাটি গ্রামে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে। ঈদের আগে আমার বড় ভাই প্রথম স্ত্রী ও মেয়েদের ঈদের জামা-কাপড় কিনার জন্য টাকাও পাঠিয়েছিলেন। শুক্রবার বিকালের দিকে তিনি স্ত্রী ও মেয়েদের দেখতে প্রথম স্ত্রী’র শ্বশুরবাড়িতে উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে ভাইয়ের সাথে ফোনে শেষ কথা হয়েছিল। তখন তিনি বলেছিলেন রাতের খাবার খেয়েছি। এখন ঘুমায়ে পড়বো। প্রায় তিন ঘন্টা পর রাত ২টার দিকে ভাবীর বাবা ও ভাই ফোন করে জানায় ভাইয়ের মৃত্যুর কথা। সকালে বাড়ি (লেটিরকান্দা) থেকে এসে দেখি আমার ভাইয়ের মাথার পিছনে ও কানের পাশ রক্তাক্ত আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমি এ হত্যাকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ এ টি এম মাহ্মুদুল হকের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে নিহতের শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছ থেকে জানতে পেরেছি নিহত রুকু মিয়া দুটি বিয়ে করেছেন। এ নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই মাস আগে তাদের তালাক হয়েছে। রুক্কু মিয়া ঈদের দিন সন্ধ্যায় প্রথম স্ত্রীর বাবার বাড়িতে এসেছেন। রাতে খাবার শেষে বিয়ে নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে প্রথম স্ত্রী রোবিনা ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামীর মাথায় কুড়াল দিয়ে আঘাত করলে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় প্রথম স্ত্রী রুবিনাকে আটক ও কুড়াল জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নেত্রকোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ