Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আহত ফিলিস্তিনিদের মৃত্যু নিশ্চিতে হাসপাতালের রাস্তাও ধ্বংস করছে ইসরায়েল

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০২১, ১২:৪৯ পিএম

দখলদার ইসরায়েল টানা ৭ দিন ধরে বর্বরতা চালাচ্ছে ফিলিস্তিনের গাজায়। বর্বর ইহুদিদের হামলা থেকে বাদ যাচ্ছে না শরণার্থী শিবিরও। নারী, শিশুসহ নির্বিচারে ফিলিস্তিনিদের হত্যায় মেতেছে ইহুদিবাদি ইসরায়েলি সেনারা।

ইসরায়েলের হামলায় এ পর্যন্ত নারী-শিশুসহ কমপক্ষে ১৬২ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে সহস্রাধিক মানুষ।

ফিলিস্তিনি ওয়ফা বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, ইসরায়েলের বোমাবাজি ও তীব্র গোলাগুলি চালিয়ে গাজা উপত্যকার সাধারণ মানুষের বাড়িঘর ধ্বংস করছে। এরই মধ্যে গাজার উত্তরাঞ্চলীয় রিমাল এলাকা পুরোপুরি ব্ল্যাকআউট হয়ে পড়েছে।

বার্তাসংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস স্থানীয় বাসিন্দা ও সাংবাদিকদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রধান হাসপাতাল আল-শিফা যাওয়ার রাস্তাটাও বিমান হামলা চালিয়ে ধ্বংস করে দিয়েছে ইসরায়েল। বড় বড় গর্তে ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে রাস্তাটি।

এমনিতেই ফিলিস্তিনিদের ওপর বিষাক্ত গ্যাস হামলা চালাচ্ছে ইহুদিরা। তার ওপর বোমাবাজি ও গোলাগুলিতে আহতরা যেন চিকিৎসা না পেয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সে উদ্দেশেই এমন বর্বরতা শুরু করেছে ইসরায়েল।

এ ছাড়া আগে থেকেই গাজা অবরুদ্ধ করে রেখেছে ইসরায়েল। পর্যাপ্ত খাবার, প্রয়োজনীয় ওষুধপত্রও পৌঁছাতে দেয়া হচ্ছে না সেখানে। ইসরায়েলের এমন বর্বরতায় বিনিদ্র সময় কাটাচ্ছেন গাজার অসহায় সাধারণ মানুষ। তাদেরই এক জন বলেন, প্রতি দিনই মনে হয় আজকেই শেষ রাত, ঘুমোতে পারি না।

এদিকে যুদ্ধবাজ ইসরায়েল তাদের এমন বর্বরতা যাতে বহির্বিশ্বে প্রকাশ না পায় সে লক্ষ্যে গুড়িয়ে দিয়েছে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের অফিস সম্বলিত আল জালা টাওয়ার নামে একটি বহুতল ভবন।

বহুতলটির স্বত্বাধিকারী জওয়াদ মেহেদি জানান, ইসরায়েলের একজন সেনা কর্মকর্তা তাকে এক ঘণ্টার মধ্যে ভবনটি খালি করে দিতে বলে। দ্রুত সকলকে বার করে দেওয়া হয়। তার পরেই ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় গুড়িয়ে দেয়া হয় বহুতলটি।



 

Show all comments
  • Dadhack ১৬ মে, ২০২১, ১:২৯ পিএম says : 0
    O'Allah help the Palestinian Muslim from hand of Barbarian Cancerous Israel and give victory to Hamas.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গাজায় হামলা


আরও
আরও পড়ুন