Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

ভারতের দিনে মারা যাচ্ছে ৪ হাজারের বেশি মানুষ

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২১, ১:১৪ পিএম | আপডেট : ১:১৪ পিএম, ১৭ মে, ২০২১

 

ভারতে করোনাভাইরাসে একদিনে মৃত্যু আবারও চার হাজার ছাড়িয়েছে। এদিকে পর পর কয়েকদিন মৃত্যু চার হাজার ছাড়ালো। তবে ২৬ দিন পর ২ লাখের নিচে নেমেছে করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনা শনাক্ত হয়েছে দুই লাখ ৮১ হাজার ৩৮৬ জনের দেহে।

সর্বশেষ ২০ এপ্রিল দেশটিতে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৯৫ হাজার ১৫৮। পরের দিন থেকে বেড়ে ৩ লাখ ছাড়ায়, আর চলতি মাসে শনাক্ত ৪ লাখও ছাড়িয়ে যায়।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যুও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ১০৬ জনে। এ নিয়ে ভারতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৭৪ হাজার ৩৯০।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, দেশটিতে মোট আক্রান্ত সংখ্যা ২ কোটি ৪৯ লাখ ৬৫ হাজার ৪৬৩।

দেশটিতে সবচেয়ে বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে মহারাষ্ট্রে। এখন পর্যন্ত রাজ্যটিতে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৫৩ লাখের বেশি মানুষের দেহে। মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৮১ হাজার।

এরপরই আছে কর্ণাটক। সেখানে শনাক্ত হয়েছে ২২ লাখের বেশি। আর মৃত্যু হয়েছে প্রায় ২২ হাজার।

ভারতে ভাইরাসটির সংক্রমণ দ্রুত বাড়তে থাকায় ঘাটতি দেখা দিয়েছে করোনার টেস্ট কিট, ওষুধ, অক্সিজেনসহ বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জামের। রোগীর বিপরীতে স্বাস্থ্য খাতে দেখা দিয়েছে ব্যাপক লোকবল সংকট।

মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হতে থাকায় শ্মশান, কবরস্থানগুলোতেও স্বজনদের মরদেহ নিয়ে প্রতিদিন ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে অসংখ্য মানুষকে।

এমন পরিস্থিতিতে সৎকারের খরচ তিন গুণ বেড়ে ১৫ হাজার রুপি ছাড়িয়েছে অনেক জায়গায়। সৎকার ছাড়াই নদীতে ভাসিয়ে অথবা মাটিচাপা দেয়া হচ্ছে অনেক মরদেহ।

কারণ শেষকৃত্যে বিপুল খরচ আর চিতায় পোড়ানোর জন্য কাঠের ঘাটতির ফলে দরিদ্র মানুষের জন্য স্বজনদের অন্তিমযাত্রায় ধর্মীয় রীতি নিশ্চিত করে মরদেহ পোড়ানো কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ