Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

কা’বা শরীফে বিদায়ী তাওয়াফ শেষে মদীনা গেছেন খালেদা জিয়া

প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : মক্কায় কা’বা শরীফে বিদায়ী তাওয়াফ শেষে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা মোবারক জিয়ারত করতে মদীনা গেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার সঙ্গে রয়েছেন ছেলে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরাও। হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে তিনদিন মিনা রাজকীয় প্যালেসে অবস্থানের পর গতকাল (শনিবার) কা’বা শরীফ বিদায়ী তাওয়াফ করে সকালে সাউদিয়া এয়ার লাইন্সের বিমানে মদীনায় পৌঁছেছেন বলে জানান বিএনপি চেয়ারপারসনের সফরসঙ্গী শরীফ শাহ কামাল তাজ। তিনি বলেন, ম্যাডাম বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা জেদ্দা থেকে বিমান যোগে মদীনায় পৌঁছান। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা মোবারক জিয়ারতসহ মসজিদে নববীতে কয়েকদিন ইবাদত-বন্দেগী করবেন তারা। এর আগে রাতে মক্কায় কা’বা শরীফে বিদায়ী তাওয়াফ করেন বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ অন্যরা। সউদী বাদশাহ সউদ বিন আবদুল আজিজের আমন্ত্রণে রাজকীয় অতিথি হিসেবে খালেদা জিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যরা এবার হজ পালন করেন। গত ৭ নভেম্বর হজ পালন করতে বাংলাদেশ থেকে খালেদা জিয়া এবং লন্ডন থেকে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা জেদ্দা আসেন। খালেদা জিয়ার এটি তৃতীয় হজ। এর আগে ১৯৯১ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে একবার এবং ১৯৯৭ সালে বিরোধী দলে থাকাকালে তিনি হজ পালন করেন। তবে প্রায় প্রতিবছরই রমজানে তিনি ওমরাহ পালন করেন।
খালেদা জিয়ার বড় পুত্র ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, স্ত্রী জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান এবং বেগম খালেদা জিয়ার ছোট পুত্র মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথির এটি প্রথম হজ। তবে ২০১৪ সালে তারা খালেদা জিয়ার সাথে ওমরাহ পালন করেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে ঢাকা থেকে আসা তার উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য এনামুল হক চৌধুরী, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ কামাল তাজ, একান্ত সচিব আবদুস সাত্তার, আলোকচিত্রী নুরুউদ্দিন আহমেদ, গৃহকর্মী ফাতেমা বেগমও হজ করেন। তারেক রহমানের শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানু, শাহিনা খান জামান বিন্দু ও স্বামী সৈয়দ শফিউজ্জামানও এবার হজ করেছেন।
বিএনপি নেতাদের ঘায়েল করতে সরকারের নির্যাতনÑমির্জা ফখরুল
স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির নেতাকর্মীদের ঘায়েল করতেই বর্তমান সরকার ধারাবাহিক জুলুম ও নির্যাতন করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল এক সংবাদ বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।
ফেনীতে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন-উর-রশিদসহ দলটির সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ বিবৃতি দেয়া হয়। বর্তমান সরকারের আমলে বিরোধী দলকে দমন করার হীন চক্রান্তের অংশ হিসেবে বিএনপি নেতাকর্মীদের মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা আলমগীর। তিনি এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে দলের নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ