Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

বিএমইটিতে ই-টেন্ডার কেলেঙ্কারি নিয়ে তোলপাড়

কমিটির সভাপতি তোপের মুখে: কমিশন বাণিজ্যের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২১, ১১:২০ পিএম

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটিতে) ৪০টি নতুন টিটিসি’র ই- টেন্ডার নিয়ে কেলেঙ্কারির অভিযোগ ডিজির রুমে টেন্ডার কমিটির সভাপতি বিএমইটির এডিজি (যুগ্ম সচিব) মীর খাইরুল আলম ঠিকাদারদের তোপের মুখে পড়েন। বিএমইটির ডিজি শামছুল আলমের রুমে এডিজি মীর খাইরুল আলমকে ই-টেন্ডারের কমিশন বাণিজ্যের অভিযোগে ঘেরাও করেন কতিপয় ঠিকাদার।

প্রায় ১শ’ কোটি টাকার ই- টেন্ডার গত ২৬ এপ্রিল দাখিলের শেষ সময় ছিল। বিধি অনুযায়ী ই-টেন্ডার ওপেন রাখার কথা। কিন্তু টেন্ডার কমিটির সভাপতি এডিজি মীর খাইরুল আলম একটি চিহ্নিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে মোটা অঙ্কের কমিশন বাণিজ্যের মাধ্যমে কার্যাদেশ পাইয়ে দিতে ই-টেন্ডার ওপেন রাখেননি এবং টেন্ডার প্রক্রিয়া নিয়ে টালবাহানা শুরু করেন। আজ ডিজির রুমে এ নিয়ে এডিজি মীর খাইরুল আলমের মধ্যে তুমুল বাকবিতান্ডা শুরু হলে ডিজি পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে এডিজি মীর খাইরুল আলম কতিপয় দালাল নিয়ে দ্রুত ডিজির রুম ত্যাগ করেন।

রাতে এ ব্যাপারে বিএমইটির ডিজি শামছুল আলম এক প্রশ্নের জবাবে ইনকিলাবকে বলেন, আজ আমার রুমে ৪০ টিটিসির ই-টেন্ডার নিয়ে কোন তোলপাড় ও হৈ-চৈ হয়নি। তবে একজন ঠিকাদার ই-টেন্ডারের অভিযোগ নিয়ে এসেছিল। ডিজি বলেন, টেন্ডারে যারা অংশ গ্রহণ করেছেন তারা নানা অভিযোগ করতেই পারেন। তবে ই-টেন্ডারের যথাযথ নিয়ম বিধি অনুসরণ করেই কার্যাদেশ দেয়া হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ই-টেন্ডার কেলেঙ্কারি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ