Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

তাউকতের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত গুজরাট

মৃত ৭, ক্ষতিগ্রস্ত উপকূলবর্তী এলাকা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০২১, ১২:০২ এএম

গুজরাটের একাংশে কার্যত তাণ্ডব চালিয়েছে ঘূর্ণিঝড় তাউকতে। ঘূর্ণিঝড়ে প্রভাবে রাজ্যটিতে মারা গেছে ৭ জন। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উপকূলবর্তী এলাকা। বিভিন্ন জায়গায় বাড়িঘর, রাস্তাঘাটের ক্ষতি হয়েছে। গাছ উপড়ে পড়েছে, ভেঙে গিয়েছে বিদ্যুতের খুঁটি। তবে ভারতীয় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, তাউকতে দুর্বল হয়ে পড়েছে। উত্তর-পশ্চিম দিকে প্রবাহিত হওয়ার সময় ধীরে ধীরে এটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে।
তাউকতে-র প্রভাবে গুজরাটের বিভিন্ন অংশে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। প্রায় ৩৫টি তালুকায় এক ইঞ্চির বেশি পানি জমে রয়েছে। আমেদাবাদ শহরের অনেক অংশে হাঁটুসমান পানি। মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড়ের ফলে রাজ্যে ১৬ হাজারের বেশি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, ৪০ হাজারের বেশি গাছ এবং ১ হাজারের বেশি বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়েছে।
সমুদ্রে খারাপ অবস্থার সময় ভেরাভাল পোতাশ্রয় এলাকায় জেলেদের একটি নৌকা আটকে পড়ে। সেখান থেকে আট মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করে ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনী। এছাড়া খারাপ আবহাওয়া চলাকালীন প্রতিবেশী রাজ্য মহারাষ্ট্রের সতপতি উপকূলে একটি ভ্রাম্যমাণ জাহাজ আটকে পড়ে। সেখান থেকে আট ক্রু মেম্বারকে উদ্ধার করে দমনের সিজে বিমানঘাঁটিতে থাকা দুটি হেলিকপ্টার।
এদিকে সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৪টি পর্যন্ত আমেদাবাদ শহরে ৭৫.৬৯ মিমি বৃষ্টিপাত হয়েছে। এমনটা জানিয়েছেন পুর কমিশনার মুকেশ কুমার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, তাউকতের অবশিষ্টাংশ উত্তর-পূর্ব দিক হয়ে রাজস্থান এবং পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে প্রবেশ করবে যথাক্রমে আজ ও আগামীকাল। গুজরাটের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব(রেভিনিউ) পঙ্কজ কুমার জানান, গত সোমবার রাত দেড়টা নাগাদ গুজরাটে আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় তাউকতে। আমরেলি, গির সোমনাথ, জুনাগড়, পোরবন্দর, রাজকোট, ভাবনগর এবং বোতাড়ার মতো জেলাগুলো সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সূত্র : এবিপি আনন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন