Inqilab Logo

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬ কার্তিক ১৪২৮, ১৪ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ফিলিস্তিনে ইসরাইলি ধ্বংসযজ্ঞ বন্ধে জাতিসংঘ নীরব দর্শক- বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ

শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২১, ৮:৩৭ পিএম

ফিলিস্তিনে ইসরাইলের বেপরোয়া ধ্বংসযজ্ঞ বন্ধে জাতিসঙ্ঘ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। গাজায় বিমান হামলা চালিয়ে শত শত বাড়িঘর ধ্বংস, নারী ও শিশুসহ নির্বিচারে মানুষ হত্যা করছে বিশ্ব সন্ত্রাসী ইসরাইল। ইসরাইলি বর্বরতা বিরুদ্ধে একটি নিন্দা প্রস্তাব পর্যন্ত প্রকাশ করতে পরেনি জাতিসংঘ। জাতিসঙ্ঘের এ ব্যর্থতা লজ্জাজনক। ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ওআইসিও কার্যকর কোন ভূমিকা রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। এ অবস্থায় অসহায় ফিলিস্তিনি জনগণের পক্ষে বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ আজ বুধবার পৃথক পৃথক বিবৃতিতে এসব কথা বলেছেন। এদিকে, ফিলিস্তিনে ইসরাইলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে আগামী শুক্রবার বাদ জুমা দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে খেলাফত মজলিস।

খেলাফত মজলিস : ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজায় ইহুদীবাদী ইসরাইলি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলা ও ধ্বংসযজ্ঞের বিরুদ্ধে আগামীকাল শুক্রবার বাদ জুম্মা দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি সফলের আহ্বান জানিয়ে আজ এক বিবৃতিতে খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, বিগত ১০ দিন যাবৎ বিমান হামলা চালিয়ে গাজায় নারী শিশুসহ কয়েক শত ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে। শত শত বাড়ী ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। মিডিয়া হাউজ, হাসপাতাল, শরণার্থী শিবিরে বোমা হামলা চালিয়ে যুদ্ধাপরাধ করছে ইসরাইল। ইসরাইলের এ বেপরোয়া ধ্বংসযজ্ঞ বন্ধে জাতিসঙ্ঘ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। ইসরাইলি বর্বরতা বিরুদ্ধে একটি নিন্দা প্রস্তাব পর্যন্ত প্রকাশ করতে পরেনি জাতিসঙ্ঘ। জাতিসঙ্ঘের এ ব্যর্থতা লজ্জাজনক। ওআইসিও কার্যকর কোন ভূমিকা রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। এ অবস্থায় অসহায় ফিলিস্তিনি জনগণের পক্ষে বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। বিশ্বের সকল মানবতাবাদী মানুষকে ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। শুক্রবার খেলাফত মজলিস ঘোষিত দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি সফল করতে আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন, গাজা ও ফিলিস্তিনে ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রাজপথে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ প্রদর্শন অব্যাহত রাখতে হবে। পবিত্র আল-আকসা রক্ষা করতে হবে। ফিলিস্তিনকে মুক্ত করতে হবে।

বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি : বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মাওলানা আব্দুর রশিদ মজুমদার ও মহাসচিব মুফতি মো. আব্দুল কাইয়ূম আজ এক যুক্ত বিবৃতিতে ফিলিস্তিনের নিরস্ত্র মুসলমানের উপর ইসরাইলি বর্বরোচিত আগ্রাসনের নিন্দা জ্ঞাপন করে বলেন, মুসলিম বিশ্বকে দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। নেতৃদ্বয় বলেন, সাম্রাজ্যবাদী মার্কিন শক্তির মদদে ইসরাইলের আগ্রাসনের হাত থেকে নারী, শিশু, বৃদ্ধ ও মুসলমানদের পবিত্র মসজিদ বায়তুল মুকাদ্দাস, গণমাধ্যম অফিসসহ কোন কিছুই রেহাই পাচ্ছে না। যা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন।

তারা বলেন, বিশ্বের বিবেকবান শান্তিকামী মানুষ যুদ্ধবিগ্রহ দেখতে চায় না তাই সারা বিশ্বের অগণিত মানুষ এই ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে মুখর হয়ে উঠেছে। মাওলানা আব্দুর রশিদ মজুমদার ফিলিস্তিনে ইসরাইলি আগ্রাসন বন্ধে ওআইসি, আরব লীগ, জাতিসঙ্ঘকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার জোর দাবি জানান। তিনি বাংলাদেশসহ যে সকল দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন তাদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন ও মোবারকবাদ জানান।

বাংলাদেশ লেবার পার্টি : ফিলিস্থিনে আন্তর্জাতিক রীতি-নীতি উপেক্ষা করে ইসরাইল বিমান হামলা চালিয়ে নির্বিচারে নারী-শিশুসহ ২৮০ জন নিহতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ লেবার পার্টি।

আজ বুধবার বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন ফারুক রহমান, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান ভাষা সৈনিক লোকমান হাকিম, মাহবুবুর রহমান খালেদ, এস এম ইউসুফ আলী, মোসলেম উদ্দিন, আমিনুল ইসলাম আমিন, জহুরুল হক জহির, এডভোকেট আমিনুল ইসলাম রাজু, আলাউদ্দিন আলী ও হিন্দুরত্ন রামকৃষ্ণ সাহা এক যৌথ বিবৃতিতে ইসরাইলি রাষ্ট্রীয় উগ্রসন্ত্রাসী বাহিনীর মানবতা বিরোধী পৈচাশিক হত্যাযজ্ঞের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
লেবার পার্টির নেতৃবৃন্দ বলেন, বিশ্বব্যাপী চলমান মহামারি করোনার এই কঠিন সময়ে পবিত্র রমজানে শবেকদর, জুমাতুল বিদা ও পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনসহ এখনো ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের ন্যাক্কারজনক ও নৃশংস হামলা মানবতার বিরুদ্ধে এক জঘন্যতম অপরাধ। এই ঘটনা বিশ্বব্যাপী চলমান বর্বরতার আরেকটি ঘৃণ্যতম উদাহরণ হয়ে থাকবে। ইসরাইলের সর্বগ্রাসী এই হামলায় ফিলিস্তিন আজ এক মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে। ইসরাইলি বাহিনী স্থল ও আকাশ পথে সশস্ত্র হামলা চালিয়ে নারী-শিশু, কিশোর-যুবক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে নির্বিচারে নির্মমভাবে হত্যা করছে। এমন বর্বরতার বিরুদ্ধে বিশ্ববাসী স্তম্ভিত ও ক্ষুব্ধ।

বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি : বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা কাজী আবু হোরায়রা ও মহাসচিব মাওলানা আবদুল মালেক নুরী আজ এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন ইসরাইলিদের রাষ্ট্র বলে কিছু নেই। যে রাষ্ট্রের তারা দাবি করছে তা জারজ। এটা আমেরিকা ও ইউরোপের জবর দখল। ফিলিস্তিনের জমি দখল করে জারজ রাষ্ট্র নাম দিয়ে সেখানে ফ্রান্স ও জার্মানীর জারজ ইহুদিদেরকে নাগরিক বানানো হয়েছে। বিশ্ব মুসলিম তাদের কোনদিন মেনে নেয়নি। তারা বিশ্ব সন্ত্রাসী। তারা মুসলমানদের রক্ত নিয়ে হুলি খেলছে। নেতৃদ্বয় ইসরাইলি আগ্রাসন ও হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করতে বিশ্ব সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান।

ইসলামী ঐক্যজোট (আইওজে) : ফিলিস্তিনে বর্বর ইসরাইলি হত্যাযজ্ঞ ও আগ্রাসন বন্ধের দাবিতে আগামীকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী ঐক্যজোট। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, দলের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ