Inqilab Logo

সোমবার, ০২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২২ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

প্রতিপক্ষের হামলায় আহত যুবকের মৃত্যু

ছাতক (সুনামগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

সুনামগঞ্জের ছাতক ও জগন্নাথপুর থানার সীমান্তবর্তী পূর্ব বসন্তপুর-কচুরকান্দি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত উজ্জল মিয়া (৩০) নামের যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে চিকিৎসাধীন অবস্থার ঢাকার একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। সে ছাতক উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের পূর্ব বসন্তপুর প্রকাশিত কচুরকান্দি গ্রামের মকরমপুরী বাড়ীর মৃত আকলু মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, ছাতক ও জগন্নাথপুর উপজেলার মধ্যবর্তী একটি গ্রামের নাম পূর্ব বসন্তপুর-কচুরকান্দি। এ গ্রামটিতে দুই উপজেলা মানুষের বসবাস। গ্রামটি ছাতকের একটি ও জগন্নাথপুর উপজেলার দুইটিসহ মোট তিনটি ইউনিয়নের সীমানাও রয়েছে।

পূর্ব শত্রুতার জেরে গত সোমবার দুপুরে জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়নের পূর্ব বসন্তপুর কচুরকান্দি গ্রামের আশিক আলী ও হাশিম ওরফে রফিকরা ছাতক উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের উজ্জল মিয়া (৩০) ও আনু মিয়া (৩২) কে কুপিয়ে আহত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু উজ্জলের অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওইদিন তাকে প্রেরণ করা হয় ঢাকার একটি হাসপাতালে।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার মধ্যরাতে সে মারা যায়। এদিকে ঘটনার পর স্থানীয়রা হামলাকারী হাশিম ওরফে রফিককে আটক করে জগন্নাথপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। মীরপুর ইউপি সদস্য আবদুল মালিক মানিক জানান, ময়নাতদন্ত শেষে লাশ ঢাকা থেকে বাড়িতে আনার প্রস্তুতি চলছে। তবে এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় কোন থানায় মামলা হবে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘটনার পর ছাতক ও জগন্নাথপুর থানার ওসিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুবকের মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ