Inqilab Logo

শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২১ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কোচের কাজে হস্তক্ষেপ না করার অনুরোধ মনিকের

জিম ও সুইমিং করে দিন পার ফুটবলারদের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০২১, ১২:০৩ এএম

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের বাকি তিন ম্যাচকে সামনে রেখে বর্তমানে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের ক্যাম্পে রয়েছেন জাতীয় দলের ফুটবলাররা। দলের ব্রিটিশ প্রধান কোচ জেমি ডের তত্ববধানে প্রচন্ড খরতাপে প্রতিদিন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মাঠের অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছেন তারা।
অন্যদিকে জাতীয় দলকে আরও শক্তিশালী করা ও দল নির্বাচন বিতর্কমুক্ত রাখার লক্ষ্য নিয়ে ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) শীর্ষ ক্লাবগুলোর কোচ এবং ম্যানেজারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। আলোচনার দ্বিতীয় দিন গতকাল তিনি বসেছিলেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড ও সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে। মঙ্গলবার বাফুফে বস আলোচনা করেছিলেন বসুন্ধরা কিংস, ঢাকা আবাহনী ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের কোচ ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে। সব ক্লাবেরই কোচ ও কর্মকর্তাদের কাছে সালাউদ্দিনের প্রশ্ন ছিল- ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে নেপালের ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট এবং বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের বাকি তিন ম্যাচের জন্য যেসব খেলোয়াড়কে ক্যাম্পে ডেকেছেন, এর বাইরে ডাক পাওয়ার মতো কোনো খেলোয়াড় আছেন কি না?
বাফুফের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন অনেকেই। কারণ নেপালের টুর্নামেন্টের ফাইনালে বাংলাদেশ হেরে যাওয়ার পর দল নির্বাচন নিয়ে বেশ বিতর্ক উঠেছিল। কোচ জেমির ভূমিকা নিয়েও তখন প্রশ্ন তুলেছেন ফুটবলবোদ্ধারা। এ নিয়ে বাফুফেতেও হয়েছিল নানা আলোচনা। তাই এবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাকি তিন ম্যাচের আগে শক্তিশালী জাতীয় দল গঠনের লক্ষ্যেই কাজী সালাউদ্দিন ক্লাব কোচদের মতামত নিয়েছেন। কারণ সারা বছর তারাই খেলোয়াড়দের সান্নিধ্যে থাকেন, খুব কাছ থেকে দেখেন।
সালাউদ্দিনের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানালেও জাতীয় দলের সাবেক কোচ ও বর্তমানে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের প্রধান কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক অনুরোধ করেছেন কোচ জেমি ডের কাজে কাউকে হস্তক্ষেপ না করার।
বাফুফের সভাপতির সঙ্গে কাল বৈঠক শেষে তিনি বলেন, ‘কোচের চোখে যাকে ভালো মনে হবে তিনি তাকেই ডাকবেন। আমার ক্লাবের খেলোয়াড় সুযোগ পেলেন কি পেলেন না, তা নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই। এ নিয়ে কারোরই অভিযোগ থাকা উচিত নয়। কোচ যাদের নিয়ে খেলাবেন, তারা আমাদের বেটার পারফরম্যান্স দেবে। কোচের পদটি গুরুত্বপূর্ণ। সেটা তিনিও উপলব্ধি করেন এবং সেভাবেই সিলেকশন করে থাকেন। এখানে অন্য কারো হস্তক্ষেপ কাম্য নয়। আমরাও পরামর্শ দেব না যে, একে নাও-ওকে নাও।’
মানিক আরও বলেন, ‘ জেমি ডে পেশাদার কোচ। আমাদের চেয়ে ভালো জানেন, বোঝেন। তিনি যদি ভুল করেন, তাহলে তা শুধরানোর দায়িত্ব তো আমাদের না। এটা আমাদের দায়িত্বের মধ্যেও পড়ে না। কোচের সিদ্ধান্তই ফাইনাল। তার সঙ্গে তার সহকারীরা আছেন। তিনি প্রয়োজনে সহকারীদের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন।’
এদিকে তিনদিন টানা অনুশীলনের পর গতকাল বিশ্রামে ছিলেন জাতীয় দলের ফুটবলাররা। তবে পুরোপুরি বিশ্রামে থাকতে পারেননি জামাল ভূঁইয়ারা। দিনটি তারা পার করেছেন জিম আর সুইমিং সেশনের মধ্য দিয়ে। আজ সকাল ১০টায় ফের বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মাঠের অনুশীলনে নামবেন জেমি ডে শিষ্যরা।
বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে কাতার যাওয়ার আগ পর্যন্ত হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে থাকবে জাতীয় দল। আপাতত যে সিডিউল তাতে ৩০ মে বাংলাদেশ দলের দোহা যাওয়ার কথা। সেখানে লাল-সবুজরা ৩, ৭ ও ১৫ জুন বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তিন ম্যাচ খেলবে আফগানিস্তান, ভারত এবং ওমানের বিপক্ষে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোচ

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন