Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

দেওবন্দের নির্বাহী মুহতামিম মাওলানা কারী উসমান মানসুরপুরী আর নেই

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০২১, ৭:২৭ পিএম

ভারতে অবস্থিত বিশ্বখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলুম দেওবন্দের কার্যনির্বাহী মুহতামিম ও জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের (একাংশ) সভাপতি সাইয়েদ মাওলানা কারী উসমান মানসুরপুরী (রহ.) আর নেই। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন।

আজ শুক্রবার জুমার পর তিনি ইন্তেকাল করেন। তার ছেলে মুফতি সালমান মানসুরপুরী এক হোয়াটসঅ্যাপ ম্যাসেজের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কারী সাইয়েদ উসমান মানসুরপুরী শাইখুল ইসলাম হজরত মাওলানা সাইয়েদ হুসাইন আহমাদ মাদানী (রহ:)-এর সুযোগ্য জামাতা। অল ইন্ডিয়া মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াতের সদর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন তিনি।

এদিকে সম্প্রতি গত এক মাসের ভেতরে দারুল উলুম দেওবন্দের আরো সুযোগ্য দু’জন শিক্ষক ইন্তেকাল করেন। একজন দেওবন্দের আদব বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান মাওলানা নূরে আলম খলীল আমিনী রহ:। অন্যজন ইবনে হাজার ছানীখ্যাত মাওলানা হাবীবুর রহমান আজমী রহ.।

এর আগে গত সোমবার রাত ৩টার দিকে ইন্তেকাল করেন দারুল উলুম দেওবন্দের প্রবীণ উস্তাদ আরবি ম্যাগাজিন আদ-দাঈ-এর চিফ এডিটর মাওলানা নুর আলম খলিল আমিনী ইন্তেকাল করেন।

মাওলানা নুর আলম খলিল আমিনী রহ:-এর আগে গত ১৫ দিন থেকে অসুস্থ ছিলেন। তাকে অক্সিজেন লাগানো হয়েছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দু’দিন আগে কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। গতকাল দুপুর থেকে তার শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে কষ্ট হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। এরপর আজ মধ্যরাতে তিনি দেওবন্দে নিজের বিশ্রামাগারে ইন্তেকাল করেন।
মাওলানা নূর আলম খলিল আমিনী রহ: দারুল উলুম দেওবন্দে তিন দশক ধরে আরবি ভাষা সাহিত্যের খেদমত আঞ্জাম দিয়ে আসছিলেন।

এছাড়াও তিনি হিন্দুস্তান থেকে প্রকাশিত মাসিক আদ দাঈ ম্যাগাজিনের চিফ এডিটর ছিলেন। তিনি আরবি উর্দু দুই ভাষাতেই প্রায় ১০টির বেশি কিতাব লিখেছেন। কিতাবগুলো আহলে ইলমের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ৩০ রমজানুল মোবারক ভোর সকালে ৭৭ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন দারুল উলূম দেওবন্দের প্রবীণ উস্তায ইবনে হাজার ছানীখ্যাত মাওলানা হাবিবুর রহমান আজমী রহ:।

দারুল উলূম দেওবন্দ থেকে প্রকাশিত মাসিক পত্রিকা দারুল উলূম দেওবন্দের সম্পাদক ছিলেন মাওলানা হাবিবুর রহমান আজমী (রহ:)। তিনি আসমাউর রিজাল সম্পর্কে অভিজ্ঞ ও বিশেষজ্ঞ ছিলেন। ছাত্রদের মধ্যে জনপ্রিয় শিক্ষক ছিলেন। সূত্র : ইসলামী জার্নাল



 

Show all comments
  • শওকত আকবর ২১ মে, ২০২১, ৮:২৯ পিএম says : 0
    দেওবন্দের সকল মৃর্ত শায়েখদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।আল্লাহ যেনো হযরতদের বেহেস্তের সর্বচ্ছ মাকাম দান করেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন