Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

নির্যাতনের অভিযোগে যুবলীগ নেতা ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

সোনাগাজী (ফেনী) উপজেলা সংবাদদাতা

ফেনীর সোনাগাজীতে পরকীয়ার অভিযোগে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে যৌন হয়রানি ও কথিত প্রেমিক চা দোকানী আমিনকে মাথা ন্যাড়া ও জুতার মালা পরিয়ে শাস্তি দেওয়ার অভিযোগে সোনাগাজী উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক ও চরদরবেশ ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ভুট্টুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত ৩টায় ফেনী শহরের ডাক্তারপাড়া থেকে সোনাগাজী থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ভুট্টুসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন চরশাহাভিকারী গ্রামের আবুধাবী প্রবাসীর স্ত্রী ছকিনা আক্তার লাভলি ও আমিন উল্যাহ। সোনাগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূর কাছ থেকে একই গ্রামের বলি বাড়ির শাহাব উদ্দিনের ছেলে চা দোকানী আমিন দোকানে পুঁজি খাটানোর জন্য কিছু টাকা ধার নেয়। বিষয়টি গ্রামের কিছু বখাটে জানতে পেরে পরকীয়া প্রেমের অভিযোগ তুলে আমিনের কাছে চাঁদা দাবি করে। আমিন তাদের চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে বখাটেরা তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। গত শুক্রবার বিকালে লাভলি আমিনের বাড়িতে গেলে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী বখাটেরা তাদের দুজনকে আটক করে মারধর করে ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় বখাটেরা স্থানীয় চেয়ারম্যান ভুট্টুকে বিষয়টি অবহিত করলে সে ঘটনাস্থলে এসে বিচারের নামে আমিনের মাথা ন্যাড়া ও জুতার মালা পরিয়ে গ্রাম ঘুরানোর আদেশ দেন। ওই সময় বখাটেরা লাভলিকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও যৌন হয়রানি করে। শনিবার বিকালে আবারও ওই বখাটেরা নির্যাতনের শিকার আমিনের কাছ থেকে ১৭ হাজার টাকা নগদ আদায় করে। মামলার অভিযোগে চেয়ারম্যান ভুট্টুর আদেশ অনুসারে গ্রামবাসী আমিনের মাথা ন্যাড়া ও জুতার মালা পরিয়ে গ্রামের রাস্তা প্রদক্ষিণ করায় ও চাঁদার টাকার জন্য লাভলির বাবাকে চাপ দেয় বলে উল্লেখ করা হয়। তবে চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ভুট্টুর দাবি, স্থানীয় হাজার মানুষের মতামতের ভিত্তিতে তাকে শাস্তি দেয়া হয়। এদিকে ভুট্টুর গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক হিরন ও উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন। তারা বলেন, ওসি ব্যক্তিগত রোষে অভিযোগকারীদের কাছ থেকে জোরপূর্বক সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে চেয়ারম্যান ভুট্টুকে ফাঁসিয়েছে। সোনাগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির চেয়ারম্যান ভুট্টুকে গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, তার বিরুদ্ধে হত্যা চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নির্যাতনের অভিযোগে যুবলীগ নেতা ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার
আরও পড়ুন