Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

দুই মাস পেছানো হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা

চবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২১, ৫:২৭ পিএম

দেশের করোনা পরিস্থিতির অবনতির কারণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের(চবি) ভর্তি পরীক্ষা দুই মাস পেছানো হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন’স কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। বিষয়টি ইনকিলাবকে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার(ভারপ্রাপ্ত) এস এম মনিরুল হাসান।

তিনি বলেন, আগামী ২২ জুন থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও দেশের করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় তা পেছানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে পরিস্থিতি আরও খারাপ না হলে ২০ আগস্ট থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। কোন ইউনিটের পরীক্ষা কবে হবে তা পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত হবে।"

উল্লেখ্য এবার চার হাজার ৯২৬টি আসনের বিপরীতে এক লাখ ৮৩ হাজার ৮৭০ জন শিক্ষার্থী অনলাইনে আবেদন করেছেন। সেই হিসাবে এক আসনের জন্য লড়াই করবেন ৩৭ জন পরীক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউটের ভর্তি পরীক্ষা ৪টি ইউনিট ও ২টি উপ-ইউনিটের মাধ্যমে নেওয়া হবে।
বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, ইঞ্জিনিয়ারিং ও মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদ নিয়ে গঠিত ‌‘এ’ ইউনিটের সাধারণ আসন সংখ্যা এক হাজার ২১২ টি। কলা ও মানববিদ্যা অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের আসন সংখ্যা এক হাজার ২২১ টি। ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে মোট বিভাগ রয়েছে ছয়টি। যার মোট সাধারণ আসন সংখ্যা ৪৪১ টি। বিভাগ পরিবর্তন এর 'ডি' ইউনিটে রয়েছে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের নয়টি বিভাগ, আইন অনুষদের অধীনে থাকা আইন বিভাগ, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের সব বিভাগ, জীববিজ্ঞান অনুষদের ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা এবং মনোবিজ্ঞান বিভাগ। এই ইউনিটে এক হাজার ১৬০ টি সাধারণ আসন রয়েছে। সংগীত ও নাট্যকলা বিভাগ এবং চারুকলা ইনস্টিটিউট নিয়ে গঠিত ‘বি১’ এবং শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘ডি১’ উপ-ইউনিটের সাধারণ আসন সংখ্যা যথাক্রমে ১২৫ টি এবং ৩০ টি৷ প্রতি বছরের মতো এবারও মোট ১২০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। যার মধ্যে ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা হবে। আর বাকি ২০ নম্বর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ নম্বর থেকে নেওয়া হবে। সাধারণ আসনে ৪০ নম্বর এবং কোটার আসনে ৩৫ হচ্ছে ন্যূনতম পাস নম্বর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভর্তি পরীক্ষা


আরও
আরও পড়ুন