Inqilab Logo

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৯ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ইসরাইল ও ফিলিস্তিনকে যুদ্ধবিরতি মেনে চলার আহ্বান নিরাপত্তা পরিষদের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২১, ৫:৫৬ পিএম

ইসরাইল ও ফিলিস্তিনকে যুদ্ধবিরতি পুরোপুরি মেনে চলতে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। শনিবার এই আহ্বান জানিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদেশগুলো বলেছে, ফিলিস্তিনের জনগোষ্ঠী, বিশেষ করে গাজায় অবিলম্বে মানবিক ত্রাণ পাঠানো প্রয়োজন।

গাজায় ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে ১১ দিনের সংঘর্ষের পর এই প্রথম জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ এ বিবৃতি দিল। বিবৃতিতে ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী অব্যাহত সমর্থন ও ইসরাইলি জনগোষ্ঠীর আত্মরক্ষার অধিকারকে সমর্থন দেয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকে ধন্যবাদ জানান। ইসরাইলে কয়েক হাজার রকেট হামলার বিষয়টি উল্লেখ করে সংঘাতের জন্য হামাসকে দায়ী করে ইসরাইল। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা আশা করি, গাজায় পুনর্বাসনের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় হামাসের প্রতি নিন্দা জানাবে এবং তাদের নিরস্ত্র করার উদ্যোগ নেবে।’ জাতিসংঘের বিবৃতির পরে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি ফিলিস্তিন।

জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদল সব সময় ইসরাইলকে জোরালোভাবে সমর্থন করে। মার্কিন প্রতিনিধিদল গাজায় অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধ ও মানবিক ত্রাণ বিতরণের জন্য ফ্রান্সের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। চীন, নরওয়ে ও তিউনেসিয়ার প্রস্তাবিত চূড়ান্ত বিবৃতিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদেশগুলো গাজায় চলমান সহিংসতায় হতাহত ব্যক্তিদের প্রতি কেবল শোক জানিয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস গাজায় পুনর্বাসন ও পরিস্থিতির উন্নয়নের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জাতিসংঘের সঙ্গে কাজ করতে আহ্বান জানিয়েছেন। বিবৃতিতে গুতেরেসের এ আহ্বানের প্রতি সমর্থন জানানো হয়। ওই বিবৃতিতে গাজায় যুদ্ধবিরতির জন্য মিসর ও অন্যান্য দেশের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, ১১ দিন ধরে চলা সংঘর্ষে ২৪৮ জন ফিলিস্তিনির প্রাণ গেছে। তাদের মধ্যে ৬৬ জন শিশু। ইসরাইলে এক শিশুসহ ১২ জন নিহত হয়েছে।

আগামী বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিয়মিত বৈঠকে ইসরাইল-ফিলিস্তিন ইস্যু নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে। এএফপির সংবাদকর্মী জানিয়েছেন, গত শুক্রবার যুদ্ধবিরতি কার্যকরের এক দিন পরে শনিবার গাজায় ত্রাণ সরবরাহে বাধা দেয়া হয়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, গাজায় কমপক্ষে ছয় হাজার মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে। সূত্র: এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরায়েল-ফিলিস্তিন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ