Inqilab Logo

সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

উত্তাল সাগরে ১২ নাবিককে উদ্ধার করল বিমানবাহিনী

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে উত্তাল বঙ্গোপসাগরের ভাসানচরের অদূরে দুর্ঘটনা কবলিত প্রায় ডুবন্ত একটি জাহাজের ১২ নাবিককে উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী। চট্টগ্রাম থেকে পাথর নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে গতকাল বুধবার ভোরে নোয়াখালীর ভাসানচরে বঙ্গোপসাগরের লালবয়ার চরে এমভি সানভ্যালি নামে জাহাজটি আটকে যায়। খবর পেয়ে ঢাকা থেকে বিমানবাহিনীর দুটি হেলিকপ্টার জাহাজ থেকে ১২ নাবিককে উদ্ধার করে পতেঙ্গায় জহুরুল হক ঘাঁটিতে নিয়ে আসে।
বিমানবাহিনীর চট্টগ্রাম অঞ্চলের জহুরুল হক ঘাঁটিতে কর্মরত স্কোয়াড্রন লিডার সাইফুল আলম সাংবাদিকদের জানান, ভাসানচরের আনুমানিক ১০ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ-পশ্চিমে এমভি সানভ্যালি জাহাজটি চরে আটকে যায়। তলা ফেটে জাহাজটিতে পানি ঢুকছিল এবং সেটি আস্তে আস্তে ডুবে যাওয়ার উপক্রম হয়। নৌবাহিনীর কর্মকর্তারা বিষয়টি জানতে পারেন। কিন্তু উত্তাল সাগরে নৌবাহিনীর জাহাজ দিয়ে তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পরে খবর দেওয়া হয় বিমানবাহিনীকে।
বিমানবাহিনীর ১০৯ সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ টিমের কমান্ড্যান্ট গ্রæপ ক্যাপ্টেন আবু সালেহ মো. মান্নাফীর নেতৃত্বে হেলিকপ্টার দুটি ঢাকার তেজগাঁও ঘাঁটি থেকে বেলা সাড়ে ১২টায় ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দেয়। সোয়া একটার দিকে জাহাজের অবস্থান শনাক্ত করা সম্ভব হয়। এরপর উদ্ধার অভিযান শুরু করেন রেসকিউ টিমের সদস্যরা।
জাহাজটি ডুবেই যাচ্ছিল। নাবিকরা বাঁচার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। এমন সময় হেলিকপ্টার দুটি ঘটনাস্থলে পৌঁছে। জাহাজের উপরে কাছাকাছি অবস্থান নিয়ে হেলিকপ্টার থেকে রশি দিয়ে ডুবুরি নামানো হয় সেখানে। এরপর ১২ নাবিককে উদ্ধার করে দুটি হেলিকপ্টারে তোলা হয়। জীবিত উদ্ধার ১২ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে জাহাজের মালিকের কাছে তাদের হস্তান্তর করা হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিমানবাহিনী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ