Inqilab Logo

রোববার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮, ২১ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে তরুনীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ৬

সাভার থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০২১, ১২:৪১ পিএম | আপডেট : ১:০৭ পিএম, ২৯ মে, ২০২১

ঢাকার সাভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে এক তরুনীকে গণধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে। এঘটনায় জড়িত ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে সিএন্ডবি-আশুলিয়া সড়কের আশুলিয়া গরুর হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাতেই ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে- ঢাকার তুরাগ থানার গুলবাগ ইন্দ্রপুর ভাসমান গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আরিয়ান (১৮), কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার তারাগুনা এলাকার মৃত আতিয়ারের ছেলে সাজু (২০), বগুড়া জেলার ধুনট থানার খাটিয়ামারি এলাকার সুলতান মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২৪), নারায়নগঞ্জ জেলার বন্দর থানার ধামঘর এলাকার জহুর উদ্দিনের ছেলে মনোয়ার (২৪), বগুড়া জেলার ধুনট থানার খাটিয়ামারি এলাকার তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে সোহাগ (২৫) ও বগুড়া জেলার ধুপচাচিয়া থানার জিয়ানগর গ্রামের সামছুলের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪০)। তারা সবাই তুরাগ থানার কামারপারা ভাসমান এলাকায় ভাড়া থেকে আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল-নবীনগর মহাসড়কে চলাচলরত পরিবহন শ্রমিক।

মামলার বরাত দিয়ে আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম জানান, ২২বছর বয়সী তরুনী মানিকগঞ্জে বোনের বাসা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে নারায়নগঞ্জের উদ্দেশ্যে বাসে উঠলে রাত ৮ টার দিকে আশুলিয়ার নবীনগর বাস স্ট্যান্ডে তাকে নামিয়ে দেয়। তখন বাসের জন্য অপেক্ষা করলে পূর্ব পরিচিত নাজমুল নামের এক জনের সাথে দেখা হয়। রাত ৯ টার দিকে নিউগ্রাম বাংলা মিনিবাসের চালক সুমন, হেলপার আসামি মনোয়ার ও সুপারভাইজার সাইফুল ইসলাম এসে টঙ্গী স্টেশন রোডের কথা বলে ৩৫ টাকা ভাড়া চায়। পরে তারা মিনিবাসে উঠলে গন্তব্যে যাওয়ার আগেই অন্যান্য যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে তরুনীকে জোরপূর্বক বাসে করে নিয়ে আবারও নবীনগরে ফিরে আসার সময় বাসের জানালা-দরজা আটকিয়ে তাকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করে বাসের চালক, হেলপারসহ ৬ জন। তখন তরুনীর সাথে থাকা ব্যক্তির চিৎকারে টহল পুলিশ বুঝতে পেরে বাসটি থামিয়ে তাকে উদ্ধার করে। গ্রেপ্তার করা হয় ৬জনকে। জব্দ করা হয়েছে বাসটি।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রশিদ বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের দুপুরে চার দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে। তরুনীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পাঠানো হয়েছে।



 

Show all comments
  • Dadhack ২৯ মে, ২০২১, ১২:৫৯ পিএম says : 0
    If our country rule by Qur'an then no body dare to rape.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গণধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন