Inqilab Logo

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬ কার্তিক ১৪২৮, ১৪ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

নাশতা খাওয়ায় তদন্তের মুখে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০২১, ৩:২৬ পিএম

সকালে ভরপেট নাশতা করেছেন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মেরিন। বিল হয়েছে ২৬ হাজার! আর সেই বিল তিনি মিটিয়েছেন জনগণের করে টাকায়। যা নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছে দেশটিতে। নিজের খাওয়াদাওয়ার খরচও জনগণের করের টাকায় মেটানোয় এবার তদন্তের মুখে পড়তে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

জানা গিয়েছে, প্রতিদিনের নাশতা বাবদ প্রায় ২৬ হাজার টাকা জনগণের কর থেকে আদায় করছিলেন সানা মেরিন। সম্পূর্ণ আইনবিরুদ্ধ এই কাজের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপর খড়গহস্ত সে দেশের আইন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, প্রধানমন্ত্রীর খাওয়াদাওয়ার খরচ জনগণের করের টাকা থেকে কাটবে, এমন কোথাও উল্লেখ নেই। তাই তদন্ত হলে বিপাকে পড়তে পারেন সানা। যদিও প্রধানমন্ত্রীর দাবি, দেশের পূর্ব প্রধানমন্ত্রীরাও নাকি এই একই সুবিধা ভোগ করে এসেছেন। পাশাপাশি, সানার আরও দাবি, সরকারি কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তেই ব্রেকফাস্টের খরচ সরকারি কোষাগার থেকেই মেটানো হয়। তবে তদন্তের জন্য প্রস্তুত সানা। তিনি জানিয়েছেন, দোষী প্রমানিত হলে আগামী দিনে তিনি নাশতার টাকা সরকারি কোষাগার থেকে আর নেবেন না।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ সানা মেরিন। দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই তার স্বচ্ছ ভাবমূর্তি নজর কেড়েছিল গোটা বিশ্বের। করোনা পরিস্থিতি সামাল দেয়ায় তার ভূমিকাও বহুল চর্চিত ছিল। ইউরোপে তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অল্প দিনের মধ্যেই শিরোনামে চলে এসেছিলেন। কিন্তু নাশতা বিতর্ক ফের সানাকে টেনে আনল খবরের প্রথম পাতায়। এই বিতর্কে তার ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এদিকে, আগামী ১৩ জুন থেকে শুরু হচ্ছে ফিনল্যান্ডের লোকাল বডি ইলেকশন। নির্বাচনের আগে সানার এই নাশতা বিতর্ক ভোটারদের মধ্যে ইতিমধ্যেই প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে বলেই মনে করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে বেশ বিপাকে ৩৫ বছরের এই তরুণী প্রধানমন্ত্রী। সূত্র: আউটলুক ইন্ডিয়া।



 

Show all comments
  • RAHMAN ৩০ মে, ২০২১, ৪:৩১ পিএম says : 0
    ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মেরিন যদি আমাদের দেশে জন্ম নিতেন উনার সুভাগ্য ভালো হতো শুধু নাস্তা ২৬ হাজার এটাতো কোনো বেপার না। উনিতো ওখানের প্রদান মন্ত্রী আমাদের দেশে পার্লামেন্ট মেম্বার হলেও লাখ লাখ টাকার নাস্তা খেতে পারতো । আমাদের দেশে একটা উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্স এ তিনটা কম্পিউটার সারাতে ২৭ লাখ টাকা খরচ হয়েছিল। প্লিজ প্রধানমন্ত্রী সানা মেরিন নাগরিকত্ত পরিবর্তন করুন । আর বিলম্ব না করে আমাদের দেশে এসে যান ।
    Total Reply(0) Reply
  • Md.+Raju+Ahamed ৩০ মে, ২০২১, ৪:৩২ পিএম says : 0
    এই কারনে ফিনল্যান্ড চির সুখীর দেশ
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ+দুলাল+মিয়া ৩০ মে, ২০২১, ৩:৫৩ পিএম says : 0
    একজন পধান মন্ত্রীর নাসতা নিয়ে,এতো কিছু আর আমাদের দেশের পেটুয়া এম পিদের পেটের ভিতর কতো বেয়াল মাছ।
    Total Reply(0) Reply
  • প্রবাসী-একজন ৩০ মে, ২০২১, ৯:২৬ পিএম says : 0
    যে টাকা নিয়ে এতো হৈ চৈ, ওই টাকার নাস্তা ওই দেশের একজন সাধারণ লোকেরও লাগে; কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী কেন এই সাধারণ খরচটি জনগণ থেকে আদায়কৃত কর থেকে নির্বাহ করেন। একই বলে জনগণের কাছে জবাবদিহিতা। আর বাংলাদেশে জনগণের পয়সায় নাস্তা তো দূরে থাক , গুলি কিনে জনগণকে খুন করে বেঁচে যাওয়াটা কঠিন কিছু নয়।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিনল্যান্ড


আরও
আরও পড়ুন