Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ধর্ষণ মামলায় সাক্ষ্য দেয়ায় গৃহবধূর ওপর হামলা

প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কাউখালী (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা

পিরোজপুরের কাউখালীতে ধর্ষণ মামলা সাক্ষ্য দেয়ায় অভিযুক্ত আসামীরা হেলেনা বেগম (৩৫) নামে গৃহবধূর ওপর হামলা চালিয়েছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার আইরন বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে । গুরুতর আহত ওই গৃহবধূকে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহত গৃহবধূ উপজেলার জয়কুল আবাসনের বাসিন্দা মো. বাবুল তালুকদারের স্ত্রী। জানা গেছে, উপজেলার জয়কুল আবাসনে বসবাসরত এক গৃহবধূ দুই বখাটে মুক্তারকাঠি গ্রামের মো. পলাশ ও তার অপর সহযোগী জয়কুর গ্রামের এনায়েত মিলে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহবধূ পিরোজপুর আদালতে নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি ধর্ষণ চেষ্টা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লাবনী চাকমা ঘটনার সাক্ষী হেলেনা বেগমকে তার সম্মুখে হাজির করে সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। এতে অভিযুক্ত আসামীরা গত ১০ সেপ্টেম্বর উপজেলার আইরন বাজারে সাক্ষী হেলেনাকে একা পেয়ে হামলা চালায়। এ সময় বখাটেরা তাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে আহত হেলেনাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন অবস্থা আছে। এ ঘটনায় হামলার শিকার হেলেনা বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লাবনী চাকমা বলেন, এ ব্যাপারে কাউখালী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অভিযুক্ত বখাটেদেরে বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউখালী থানার এএসআই মো. রফিক বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ মামলায় সাক্ষ্য দেয়ায় গৃহবধূর ওপর হামলা
আরও পড়ুন