Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আর্জেন্টিনাতেও হচ্ছে না কোপা আমেরিকা

করোনাভাইরাসের প্রভাব

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০২১, ১২:৫৭ পিএম | আপডেট : ১২:৫০ পিএম, ২২ জুন, ২০২১

 

রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে স্বাগতিক তালিকা থেকে আগেই নিজেরদের নাম প্রত্যাহার করেছে কলম্বিয়া। ফলে আর্জেন্টিনায় কোপা আমেরিকার সম্পূর্ণ আসর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সে দেশটিও আয়োজক দেশের তালিকা থেকে বাদ পড়ল। আর্জেন্টিনায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় সেখানে এ আসর আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত রোববার নিয়েছে কনমেবল।

অবশ্য এ শঙ্কাটা অনেক দিন আগে থেকেই ছিল। শেষ পর্যন্ত সে শঙ্কাই সত্যি হয়ে দাঁড়ালো। সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিল কনমেবল। তবে বিকল্প কোন দেশে শতবর্ষী এ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে সে সিদ্ধান্ত এখনও নেয়নি তারা। বিকল্প খোঁজার চেষ্টায় আছে সংস্থাটি।

আগামী ১৩ জুন থেকে আর্জেন্টিনা ও কলোম্বিয়ায় এ মহাদেশীয় আসর শুরু হওয়ার কথা ছিল। পরে ২০ মে কলম্বিয়ার সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ চলায় সে দেশে কোপা আমেরিকার ম্যাচ আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কনমেবল।

সবমিলিয়ে বড় অনিশ্চয়তার মধ্যেই পড়ে গেল কোপা আমেরিকা। গর বছরই এ আসর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর এ আসর পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এ বছর করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি করেছে আর্জেন্টিনায়।

আসর শুরু হতে দুই সপ্তাহের মতো বাকি রয়েছে। এতো অল্প সময়ে বিকল্প আয়োজক খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিনই। তাই আসরটি ভেস্তে যাওয়ার সংশয় উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। খুব শীগগিরই নিজের সিদ্ধান্ত জানাবে কনমেবল, 'কনমেবল এ মুহূর্তে ব্যাপারটি নিয়ে ভাবছে। কয়েকটি দেশে টুর্নামেন্ট আয়োজনের ব্যাপারে আগ্রহী। তাদের প্রস্তাবগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব শিগগির এ ব্যাপারে সবাইকে জানানো হবে।'

আয়োজক হিসেবে কলম্বিয়া বাদ পড়ার পর থেকে চিলি ও প্যারাগুয়ের নাম শোনা গিয়েছিল। এ দুটি দেশ ১৫টি ম্যাচ আয়োজনের আগ্রহ দেখিয়েছে বলে তখন সংবাদ উঠে এসেছিল। আর আর্জেন্টিনার করোনা পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকায় শোনা যাচ্ছিল যুক্তরাষ্ট্রর নামও।

উল্লেখ্য, ওয়ার্ল্ডোমিটারসের হিসাব অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২১ হাজার ৩৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আর্জেন্টিনায়। মারা গেছেন ৩৪৮ জন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি। মারা গেছেন প্রায় ৭৭ হাজার ৫০০ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আন্তর্জাতিক ফুটবল

২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন