Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে হামলায় নিহত ৫৫ : জাতিসংঘ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

জাতিসংঘ জানিয়েছে, কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলের গ্রামগুলোতে চালানো দুটি হামলায় অন্তত ৫৫ জন নিহত হয়েছেন। রাতভর এসব হামলা চালানো হয়েছে বলে সোমবার বিশ্ব সংস্থাটি জানিয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, সম্ভবত এটি ওই এলাকায় গত চার বছরের মধ্যে রাতে সংঘটিত সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতার ঘটনা। উগান্ডার সীমান্তবর্তী তেশাবি গ্রাম ও বোগার নিকটবর্তী একটি উদ্বাস্তু শিবিরে চালানো এসব হামলার জন্য ইসলামপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠী অ্যালাইড ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেসকে (এডিএফ) দায়ী করেছে কঙ্গোর সেনাবাহিনী ও স্থানীয় নাগরিক অধিকার গোষ্ঠীগুলো। এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মানবাধিকার কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে এবং বেসামরিকদের অপহরণ করা হয়েছে। বোগার নাগরিক অধিকার গোষ্ঠীর প্রধান আলবার্ট বেসেগু টেলিফোর্নে রয়টার্সকে বলেছেন, প্রতিবেশীদের বাড়িতে কান্নার শব্দে হামলার বিষয়ে সজাগ হয়েছিলেন তিনি। “যখন আমি সেখানে যাই দেখি হামলাকারীরা ইতোমধ্যেই একজন অ্যাঙ্গলিকান যাজককে মেরে ফেলেছে, তার কন্যাও গুরুতর আহত,” বলেছেন বেসেগু। ২০১৭ সাল থেকে কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলের অস্থিরতা কবলিত এলাকাগুলোর ঘটনার রেকর্ড রাখা কিভু সিকিউরিটি ট্র্যাকার (কেএসটি) টুইটারে জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে স্থানীয় এক গোত্র প্রধানের স্ত্রীও রয়েছেন। “এটি কেএসটির রেকর্ড করা সবচেয়ে প্রাণঘাতী দিন ছিল,” বলেছেন গবেষণাকারী গোষ্ঠীটির সমন্বয়ক পিয়ের বোইসশেলেত। জাতিসংঘের জানিয়েছে, সেনাবাহিনী আগের বছর এডিএফের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করলে ২০২০ সালে বেসামরিকদের ওপর প্রতিশোধমূলক হামলা শুরু করে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি, এতে ওই বছর তাদের হামলায় ৮৫০ জনেরও বেশি লোক নিহত হয়। চলতি বছরের মার্চে যুক্তরাষ্ট্র, এডিএফকে বিদেশি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে চিহ্নিত করে। এর আগে গোষ্ঠীটি মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের আনুগত্যের ঘোষণা দিয়েছিল। জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর ক্রমবর্ধমান হামলা ঠেকাতে ১ মে কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ নর্থ কিভু ও ইতুরিতে ‘স্থিতি অবস্থা’ জারি করেছিলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ফেলিক্স শিসেকেডি। চলতি মাসের প্রথমদিকে পূর্বাঞ্চলীয় প্রতিবেশী উগান্ডা কঙ্গোর সঙ্গে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় ও বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সমন্বিত অভিযানের ঘোষণা দিয়েছে কিন্তু কঙ্গোয় সেনা মোতায়েন করবে না বলে জানিয়েছে। রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন