Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সরকারি ব্যাংকে প্রমোশন বৈষম্য

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

১৯৮০ সাল থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত যেসব কর্মচারী এলডিএ কাম ক্যাশিয়ার পদে ব্যাংকসমূহে যোগদান করেছে তাদের অনেককেই এখনও একই চেয়ারে বসতে হচ্ছে। এরূপ কর্মকর্তাদের ১৯-২০ বছরে প্রথমবার প্রমোশন হয়েছে, কিন্তু চেয়ার আগেরটাই রয়ে গেছে। অথচ, ২০০৮ সাল থেকে এলডিএ কাম ক্যাশিয়ার পদে লোক নেওয়া প্রায় বন্ধ রেখে অনেকবার তরুণদেরকে কর্মকর্তা হিসাবে ব্যাংকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। নতুন নিয়োগ পাওয়াগণ রীতিমত প্রমোশন ও ইনক্রিমেন্ট পাচ্ছেন। কিন্তু ১৯৮০-১৯৯৫ সময়কালে নিয়োগপ্রাপ্তদের কয়েক বছর ইনক্রিমেন্ট দিয়ে পরে আর কোন ইনক্রিমেন্ট দেয়া হচ্ছে না। ফলে ২০-২৫ বছরের অভিজ্ঞ এসব ব্যাংক কর্মকর্তারা এখন নিজেদের ছেলেমেয়েদের বয়সীদের হাতে হেনস্থা ও অপমানের শিকার হচ্ছেন। অনেক দিনের অভিজ্ঞ এসব ব্যাংক কর্মচারীর ক্ষোভ ও বঞ্চনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ অবশ্যই বিবেচনা করবেন বলে প্রত্যাশা করি।

এস এম নজরুল ইসলাম
মিরপুর-১২, ঢাকা


কয়রাবাসীর দুঃখ কবে মিটবে?
খুলনা জেলার কয়রাবাসী আবারও জলমগ্ন অবস্থায় দিনানিপাত করছে। আম্ফানের প্রভাব কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ইয়াসের প্রভাবে জনজীবনে আবারও নেমে এসেছে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ। বিভিন্ন জায়গায় বাঁধ ভেঙে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় লোকালয়ে পানি প্রবেশ করেছে। ফলে রাস্তাঘাট, বাজার, দোকানপাট, মসজিদ, মন্দিরসহ বসতবাড়ি পানিতে থৈ থৈ করছে। প্রতিদিন দুইবেলা জোয়ারের পানি প্রবেশ করায় করোনাকালীন এই কঠিন সময়ে সমস্যা আরও তীব্রতর হচ্ছে। এমনকি রান্না করার জন্য সামান্য শুকনো জায়গা টুকুও পাওয়া যাচ্ছে না। এমতাবস্থায় এই মানুষদের প্রয়োজন জরুরি ত্রাণ সহয়তা এবং স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ। তাই প্রশাসনের কাছে কয়রাবাসীর জন্য জরুরি ত্রাণ সহয়তা এবং স্থায়ী বাঁধ নির্মাণে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি ।
মো. আফসারুল আলম মামুন
শিক্ষার্থী, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চিঠিপত্র


আরও
আরও পড়ুন