Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৭ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

অর্ধেক মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছেড়েছে, বোমায় নিহত ১০

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

মের মধ্যে সব মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছাড়া কথা থাকলে এখনো অর্ধেক সেনা রয়ে গেছে। তবে দ্রুত আফগানিস্তান ছেড়ে যাচ্ছে মার্কিন সেনারা। সামরিক পরিকল্পনাকারীদের বরাত দিয়ে ভয়েস অব আমেরিকা জানায়, প্রায় অর্ধেক সৈন্যকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে এবং সাজ সরঞ্জামগুলো হয় দেশে পাঠানো হয়েছে নয়তো নষ্ট করে ফেলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ড বা সেন্টকম মঙ্গলবার জানায়, ৩০ থেকে ৪৪ শতাংশ সৈন্য প্রত্যাহার এখন সম্পন্ন হয়েছে এবং ছয়টি স্থাপনা আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আরও অনেকগুলো ঘাঁটি সামনের দিনে হস্তান্তর করা হবে। এক বিবৃতিতে সেন্টকম বলছে, “অনুমান করছি, আফগান জাতীয় প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বাহিনী যখন দেশটিকে স্থিতিশীল ও নিরাপদ রাখার চেষ্টা করছে, তখন ভবিষ্যতে তাদের সাহায্য করতে পারে এমন আরও ঘাঁটি এবং সামরিক সম্পদ আমরা তাদের কাছে হস্তান্তর করতে পারবো।” হালনাগাদ তথ্যে জানা গেছে যুক্তরাষ্ট্র ৩০০টি সি-সেভেন্টিন বিমানের ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন সরঞ্জাম আফগানিস্তান থেকে সরাতে সক্ষম হয়েছে। আরও ১৩ হাজার সাজসরঞ্জাম নষ্ট করে দেওয়ার জন্য পাঠানো হয়েছে। এদিকে, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে আলাদা বোমা হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১২ জন। মঙ্গলবার প্রথমে দুটি বোমা হামলা চালানো হয় পশ্চিম কাবুল। এখানে মূলত হতাহতের এ ঘটনাটি ঘটে বলে জানিয়েছে, আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। অন্য হামলাটি হয় উত্তর কাবুলে। যেখানে কোন প্রাণহানি হয়নি। তবে, বোমা হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেখানকার বৈদ্যুতিক গ্রিড। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সূত্র বলছে, দেশটির হাজারা জাতিগোষ্ঠীকে কেন্দ্র করে প্রথম বোমা হামলাটি চালানো হয়। কারণ হামলাটির স্থানে হাজারা জাতিগোষ্ঠীটির বসবাস রয়েছে। হামলাটি হয় হাজারা নেতা মোহাম্মদ মোহাকিক এর বাড়ির কাছে একটি শিয়া মসজিদের সামনে। বেশিরভাগ হাজারা জনগোষ্ঠীই শিয়া মতের অনুসারী। তবে দ্বিতীয় বোমা হামলাটির কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানায়, আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। হামলার পর স্থান দুটি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। এখন পর্যন্ত এ হামলায় দায় স্বীকার করেনি কেউ। এরআগে দেশটির শিয়া মতাবলম্বীদের বিপক্ষে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিল আইএসআইএল। আফগানিস্তানে ৩৬ মিলিয়ান জনসংখ্যার মধ্যে ২০ শতাংশ শিয়া জনগোষ্ঠী। ভিওএ, এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ