Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া প্রতিষ্ঠানের তালিকা করছে এনবিআর

প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : মাঠপর্যায়ে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রণয়ন ও তাদেরকে রাজস্ববান্ধব প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের জন্য কৌশল প্রণয়নসহ ৫ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।
গতকাল এনবিআরের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সৈয়দ এ. মুমেন এক প্রেস বিজ্ঞতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।
এনবিআরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশের অর্থনীতি দিন দিন বেগবান হওয়ায় আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাটসহ সব ধরনের রাজস্ব আহরণের সম্ভাবনা বাড়ছে। মাঠপর্যায়ের কমিশনারসহ অন্য কর্মকর্তাদের যথেষ্ট চেষ্টা থাকা সত্ত্বেও অর্থনৈতিক কর্মকা-ে নিয়োজিত সব প্রতিষ্ঠান/ব্যক্তিকে এখনও করের আওতায় আনা যায়নি। এ বিষয়ে আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগ নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। এজন্য সর্বস্তরে রাজস্ববান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠায় আন্তরিক প্রয়াস চালানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এজন্য আয়কর, কাস্টমস ও ভ্যাট সদস্যদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সমন্বয় ও নিয়মিত পারস্পরিক তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যমে একটি অধিকতর কার্যকর টিমওয়ার্ক প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের সদস্যদের সমন্বয়ে একটি জরুরি ‘ব্রেইনস্টর্মিং সেশন’ আয়োজনের নির্দেশনাও দিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান।
ওই সেশনে ৫ দফা নির্দেশনা নিবিড়ভাবে পর্যালোচনার মাধ্যমে একটি কৌশলপত্র প্রণয়ন করা হবে। আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কমিশনার/মহাপরিচালকদের এ বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান যে ৫ দফা দিকনির্দেশনা প্রদান করেছেন। তা হলো আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের মাঠ পর্যায়ের দপ্তরগুলোর সঙ্গে সমন্বয় রেখে মাঠপর্যায়ে কর রাজস্বের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রেরণ। মাঠ পর্যায়ের রাজস্ব কর্মকর্তাদের পারফরমেন্স মূল্যায়ন ও মাসিক ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রেরণ। মাঠপর্যায়ে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রণয়ন ও তাদেরকে রাজস্ববান্ধব প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের কৌশল প্রণয়ন। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট কার্যক্রমকে গতিশীল করার লক্ষ্যে ফেসবুকে নিয়মিত হালনাগাদ করা। বিশেষ করে ভ্যাট অনলাইন প্রকল্প, ট্যাক্স অনলাইন প্রকল্প এবং অ্যাসাইকুডা ওর্য়াল্ড সিস্টেম কার্যক্রমকে সফল করতে সর্বতোভাবে প্রয়াস চালানো। আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের মহাপরিচালক/কমিশনারদের মধ্যে মাসিক পর্যালোচনা সভার আয়োজন করা। এতে চেয়ারম্যান, এনবিআর ও সংশ্লিষ্ট সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ