Inqilab Logo

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৯ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

আরো ১৩৫ বিলিয়ন ঘমি.গ্যাস পেয়েছে তুরস্ক

কৃষ্ণসাগর অঞ্চলে নতুন মসজিদ উদ্বোধন করলেন এরদোগান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

কৃষ্ণসাগরে আরও গ্যাসের সন্ধান পেয়েছে তুরস্ক। দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান জানিয়েছেন, তার দেশ কৃষ্ণসাগরে আরও ১৩৫ বিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাস আবিষ্কার করেছে। খবর টিআরটি ওয়ার্ল্ডের। গত বছর কৃষ্ণসাগরের পশ্চিমাঞ্চলে ৪০৫ বিলিয়ান ঘনমিটার প্রাকৃতিক গ্যাস আবিষ্কার করেছিল তুরস্ক। তুরস্কের তেল-গ্যাস অনুসন্ধানকারী জাহাজ ফাতিহ এই আবিষ্কার করে। এটা ছিল তুরস্কের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় আবিষ্কার। এর ফলে এই নিয়ে ওই এলাকায় তুরস্কের গ্যাস আবিষ্কারের পরিমাণ দাঁড়ালো ৫৪০ বিলিয়ান ঘনমিটারে। নতুন করে কৃষ্ণসাগরের দক্ষিণাঞ্চলে গ্যাসের এই বিশাল মজুদ আবিষ্কার করেছে তুরস্ক। শুক্রবার কৃষ্ণসাগর প্রদেশে এক অনুষ্ঠানে নতুন করে ১৩৫ বিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পাওয়ার কথা জানান তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তিনি বলেন, তেল-গ্যাস অনুসন্ধান এখনও চলছে। আমরা আশা করি ওই অঞ্চল থেকে আরও নতুন ভালো খবর আসবে। গত বছর দুই দফায় কৃষ্ণসাগরে ৪০৫ বিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস আবিষ্কার করে তুরস্ক। আগস্টে কৃষ্ণসাগরে ৩২০ বিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাস আবিষ্কারের পর অক্টোবরে আরও ৮৫ বিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাসের সন্ধান পায় দেশটি। তুরস্কের উত্তর উপক‚ল থেকে ১৭০ কিলোমিটার দূরে টুনা-১ এলাকায় ওই গ্যাসক্ষেত্র পাওয়া যায়। সেখানে আরও কিছু গ্যাসক্ষেত্র পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। এসব গ্যাসক্ষেত্র থেকে ২০২৩ সাল থেকে গ্যাস উত্তোলন শুরু করবে তুরস্ক। এর আগে, মসজিদের উদ্বোধনি বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেন, আমি আশাবাদী যে, উজুন মুহাম্মাদ মসজিদ কৃষ্ণ সাগর অঞ্চল, জংগুলদাগ শহর, তুরস্ক এবং মুসলিম বিশ্বের জন্য মঙ্গলজনক ফলাফল নিয়ে আসবে ইনশাআল্লাহ। মসজিদের নির্মাণের কাজের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে স্পেশাল ধন্যবাদ জানান এরদোগান। মিশন ২০২৩ এবং ভিশন ২০৫৩-এর দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, মহান দেশ হিসেবে তুরস্কের শক্তিমত্তা ও দায়িত্ব শুধু তুর্কি গন্ডিতেই সীমাবদ্ধ নয়, বরং অতীত থেকে ভবিষ্যত পানে ছুটে চলার সেই ব্রিজ পুনরায় বলবৎ করবে এবং লক্ষ্যপানে ছুটে যাবে। এরদোগান বলেন, যখন ফিলিওস বন্দরের কাজ সম্পূর্ণ হবে তখন এটি শুধু মারামারা সাগরের বন্দরগুলো এবং এ প্রণালীর ওপর চাপ কমাবে তা নয় এটা মধ্য এশিয়া থেকে দক্ষিণ ও মধ্য প্রাচ্যের পাশাপাশি কৃষ্ণ সাগর এলাকার অঞ্চলগুলোতে রেলপথে বাণিজ্যও নিশ্চিত করবে। ফিলিওস বন্দর ফিলিওস ভ্যালি প্রজেক্টের অংশ। এ প্রজেক্টের আওতায় অর্থনৈতিক অঞ্চল, বন্দর, রেল ও অন্যান্য পরিবহন সুবিধা রয়েছে। এ প্রজেক্ট নিয়ে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে এরদোগান বলেন, ফিলিওস ভ্যালি প্রজেক্টে বিনিয়োগকারীদের জন্য নানা ধরনের সুবিধার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ফিলিওস ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন হচ্ছে তুরস্কের প্রথম মেগা ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন। প্রায় ৬০০ হেক্টর জায়গা রয়েছে এ ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোনে।খবরে বলা হয়, তুরস্কের কয়লা আবিষ্কারক উজুন মুহাম্মাদ নামে দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চল জংগুলদাক শহরে কৃষ্ণ সাগর তীরে নির্মিত মসজিদ উদ্বোধন করেছেন প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান। শুক্রবার জুমার নামাজের মাধ্যমে তা উদ্বোধন করা হয়। উজুন মুহাম্মাদ মসজিদ প্রায় দুই হাজার ৫৩৫ স্কয়ার মিটার প্রশস্ত। মসজিদের চার পাশে ৭২ মিটার দীর্ঘ চারটি মিনার নির্মাণ করা হয়। মসজিদের পাশে প্রশস্ত বাগান, শিশুদের পার্ক, খেলার মাঠও আছে। এতে একসঙ্গে ছয় হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। ১৮২০-১৮২৯ সালে উসমানী খেলাফতের নাবিক থাকাকালে উজুন মুহাম্মদ তুরস্কের জংগুলদাক প্রদেশে কয়লা আবিষ্কার করেন। আবিষ্কারের পর সুলতান দ্বিতীয় মুহাম্মাদের কাছে পাঠান। উজুন মুহাম্মাদের সাফল্যে সুলতান দ্বিতীয় মুহাম্মাদ তাঁকে ৫০টি স্বর্ণ টুকরো প্রদান করেন। ১৮২৯ সালের ৮ নভেম্বর কয়লা আবিষ্কার করে উজুন মুহাম্মাদ ইতিহাসের পাতায় স্থান করে নেন। আনাদোলু এজেন্সি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তুরস্ক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ