Inqilab Logo

রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইতালির রক্ষণ যেন চীনের প্রাচীর

স্পেন-পর্তুগালের গোল মিসের মহড়া

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

সামনে আরও একটা ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ। সেখানে খেলার আগে পর্তুগালের হয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলতে চিরচেনা মাদ্রিদে এলেন রোনালদো। কিন্তু স্পেনের বিপক্ষে গোল উদযাপন করা হয়নি। আসলে কোনও দলই গোল উদযাপন করতে পারেনি। গতপরশু দুই দলের ম্যাচটি গোল শূন্য ড্র দিয়ে শেষ হয়েছে।

ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখে দুই দলই নিজেদের পরখ করে নিতে প্রীতি ম্যাচ খেলেছে। গতপরশু রাতে মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেট্রোপলিটানো স্টেডিয়ামে ১৫ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে অবশ্য কোনও দলই লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি। এ নিয়ে দুই দল ৩৯তম বারের মুখোমুখি ম্যাচটি হলো ড্র। এর আগে শেষ ছয়বারের লড়াইয়ে পর্তুগাল এগিয়ে। দুটিতে জয় পেয়েছে। আর স্পেন একটিতে। ড্র হয়েছে তিনটিতে।
লুইস এনরিকের স্পেন প্রথমার্ধে পর্তুগালকে বেশ চাপে রেখেছে। শুরু থেকে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল। আক্রমণেও। তবে পর্তুগালের গোলকিপারকে বড় পরীক্ষায় সেভাবে ফেলতে পারেনি। বরং পর্তুগাল ২২ মিনিটে ভালো সুযোগ পেয়েছিল। হোসে ফন্টের হেড জালে জড়ালেও রেফারি ফাউলের কারণে গোল দেননি। রোনালদোসহ সতীর্থরা আবেদন করেও কোনও লাভ হয়নি।
৫ মিনিট পর স্পেন বড় পরীক্ষায় ফেলে পর্তুগালকে। কিন্তু মোরাতোর ক্রসে ফেরান তোরেসের হেড পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়। এরপর একাধিক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে তাদের। ৪২ মিনিটে পর্তুগালের সেমেদোর জোরালো শট ক্রস বারের ওপর দিয়ে গেলে গোল পাওয়া হয়নি। বিরতির পর বলতে গেলে পাল্টাপাল্টি আক্রমণ হয়েছে। ৫৭ ও ৫৮ মিনিটে স্পেনের দুটি সুযোগ নষ্ট হয়। মোরাতো ও সারাবিয়ার শট পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়।
পর্তুগাল দুটি ভালো সুযোগ থেকে গোল পেতে পারতো। ৬০ মিনিটে রোনালদোর ক্রসে দিয়েগো হোতার হেড ক্রস বারের ওপর দিয়ে যায়। ৭০ মিনিটে ফ্রি-কি থেকে রোনালদো নিজেই ঠিকঠাক মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। তবে শেষ দিকে স্পেনের দুর্ভাগ্য। ৯০ মিনিটে মোরাতোর শট ক্রস বারে লেগে ফিরে না আসলে জয় দিয়ে ইউরোর প্রস্তুতি শেষ করতে পারতো এনরিকের দল।
কিক-অফের আগে জানা যায়, ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য যৌথ দরপত্র দেবে ইউরোপের দুই প্রতিবেশী স্পেন-পর্তুগাল। ইউরোর মূল লড়াই শুরুর আগে আরেকটি করে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে দুই দল। মঙ্গলবার মাদ্রিদে স্পেন খেলবে লিথুনিয়ার বিপক্ষে। পরদিন (বুধবার) লিসবনে ইসরাইলের বিপক্ষে মাঠে নামবে পর্তুগিজরা।
অন্যদিকে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে ইতালি। ছিনিয়ে নিচ্ছে একের পর এক জয়। ইউরো ২০২০ আসরকে সামনে রেখে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচেও দাপুটে জয় ছিনিয়ে নিলো চারবারের সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। স্পেন-পর্তুগালের ড্রয়ের রাতে বলোনায় প্রীতি ম্যাচে চেক প্রজাতন্ত্রকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ইতালি। কোনো গোল হজম না করেই কোচ রবার্তো মানচিনির দল জিতল টানা আট ম্যাচ।
গত বছরের নভেম্বরের পর থেকে এখনো অপরাজিত রয়েছে ২০১৮ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে জায়গা না পাওয়া ইতালি। চেক রিপাবলিকের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে টানা ছয় ম্যাচে জয় ছিল তাদের। এই ম্যাচগুলোতে প্রতিপক্ষের জালে ১৭টি গোল করলেও একটি গোল হজম করতে হয়নি তাদের।
ইতালির হয়ে গোল করেন সিরো ইম্মোবাইল, নিকোলো বারেলা ও ডোমেনিকো বেরার্ডি। তাদের মাঝে নিজের ৩০তম জন্মদিন দুরন্ত এক গোলে রাঙিয়ে নেন লোরেনজো ইনসিগনে। তাদের দুরন্ত পারফরম্যান্সে অজেয় থাকার রেকর্ডটা টানা ২৮ ম্যাচে বাড়িয়ে নিলো ইতালি।
আগামী শুক্রবার তুরস্কের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরো অভিযান শুরু করবে ইতালি। এই দুই দলের সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপে আছে ওয়েলস ও সুইজারল্যান্ড। ইউরোপ সেরার মঞ্চে আগামী ১৩ জুন নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে চেক রিপাবলিক। ‘ডি’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ও ইংল্যান্ড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইতালি


আরও
আরও পড়ুন