Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নাইজার সীমান্তবর্তী বুরকিনা ফাসোতে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় ১৩৮ জন নিহত

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২১, ৯:১৪ এএম

বুরকিনা ফাসোর উত্তরাঞ্চলীয় একটি গ্রামে সশস্ত্র হামলায় অন্তত ১৩৮ জন নিহত হয়েছেন। সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে খুবই ভয়াবহ হামলা এটি। শনিবার দেশটির সরকার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।
এর আগে গত শুক্রবার রাতভর নাইজার সীমান্তসংলগ্ন ইয়াগহা প্রদেশের সোলহান গ্রামের বাসিন্দাদের ওপর এ হামলা চালানো হয়। হামলাকারীরা অনেক ঘরবাড়ি ও বিপণিবিতান পুড়িয়ে দিয়েছে। খবর বিবিসির
কোনো গোষ্ঠী এখনও এ সহিংসতার দায় স্বীকার করেনি। তবে দেশটিতে বিশেষত সীমান্তবর্তী অঞ্চলে জঙ্গি গোষ্ঠীদের হামলা প্রায়ই হয়।
বুরকিনা ফাসোর সরকার হামলাকারীদের ‘সন্ত্রাসী’ বলে অভিহিত করেছে। নিহত ব্যক্তিদের স্মরণে তিনদিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে।
এ বছরের শুরু থেকে পশ্চিম আফ্রিকার সাহেল অঞ্চলে আল-কায়েদাসহ অন্যান্য সশস্ত্র সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে। হামলার শিকার হচ্ছে বুরকিনা ফাসোর একাংশ, মালি ও নাইজারের সাধারণ লোকজন। সহিংসতা ও হামলায় গত দুই বছরে বুরকিনা ফাসোয় ১১ লাখ ৪০ হাজারের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। হামলা থেকে বাঁচতে পার্শ্ববর্তী মালি থেকে আসা ২০ হাজারের মতো শরণার্থীকেও আশ্রয় দিয়েছে দেশটি।
বিবিসি জানায়, গত মাসে বুরকিনা ফাসোর পূর্বাঞ্চলে এক হামলায় অন্তত ৩০ জন নিহত হন। সশস্ত্র এই হামলার প্রতিক্রিয়ায় সে মাসেই বড় ধরনের অভিযান চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। সাহেল অঞ্চলে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবিলায় মালি, চাদ, মৌরিতানিয়া, নাইজার ও বুরকিনা ফাসোর সেনাবাহিনীকে সহায়তা দিচ্ছে ফ্রান্সের সেনাবাহিনী। সূত্র : বিবিসি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বুরকিনা ফাসো


আরও
আরও পড়ুন