Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

বন্ডের কার্যক্রম সহজীকরণে কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটকে বিজিএমইএ’র অনুরোধ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০২১, ৭:০৮ পিএম | আপডেট : ৮:২২ পিএম, ৮ জুন, ২০২১

পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট বন্ডের কার্যক্রম সহজীকরণের জন্য কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটকে অনুরোধ জানিয়েছে বিজিএমইএ। এ লক্ষ্যে সোমবার (৭ জুন) বিজিএমইএ এর একটি প্রতিনিধিদল কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের কমিশনার কাজী মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে সেগুন বাগিচাস্থ কার্যালয়ে সাথে সাক্ষাৎ করেছেন।

বিজিএমইএ প্রতিনিধিদলের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম মান্নান (কচি), সহ-সভাপতি মো. শহিদউল্লাহ আজিম, পরিচালক আসিফ আশরাফ, সাবেক পরিচালক মো. মুনির হোসেন, মিতালী গ্রুপ এর চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু ইউসুফ আব্দুল্লাহ ও স্প্যারো অ্যাপারেলস লি.- এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শোভন ইসলাম। এ সময় কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের অতিরিক্ত কমিশনার খালেদ মোহাম্মদ আবু হোসেন এবং মো. জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনাকালে বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল বলেন, করোনা মহামারিতে পোশাক শিল্প ক্রান্তিলগ্ন অতিক্রম করছে। এ পরিস্থিতিতে অর্থনীতির চাকা সচল রাখা এবং প্রতীক‚ল পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পোশাক শিল্প উদ্যোক্তারা প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। উদ্যোক্তারা মনে করেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বন্ড কমিশনারেটের পক্ষ থেকে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বন্ড সংশ্লিষ্ট পোশাক শিল্পের কার্যক্রমগুলো সহজীকরণের উদ্যোগ নেয়া হলে তা শিল্পকে পরিস্থিতি মোকাবেলায় সহায়তা করবে।

বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল পোশাক শিল্পের স্বার্থে বন্ডের কার্যক্রম সহজীকরণের জন্য কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের কাছে কিছু প্রস্তাবনা দিয়েছেন। সেগুলো হলো- বন্ড লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্য বন্ড লাইসেন্সবিহীন সহযোগী রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করার নিমিত্তে পূর্বের ন্যায় ইউপি জারী অব্যাহত রাখা, সূতা থেকে নীট গার্মেন্টস উৎপাদনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত কমিটি থেকে অপচয় বৃদ্ধির হার পুনঃ-নির্ধারণ ও সংশোধন না হওয়া পর্যন্ত অন্তবরর্তীকালীন পদক্ষেপ হিসেবে বিভিন্ন সংস্থার প্রদেয় সার্ভিসসমূহ ও বার্ষিক নিরীক্ষা, জরিমানা আরোপ ও উৎপাদন কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত না করে রফতানিতে সহযোগিতা, বন্ড লাইসেন্সে এইচএস কোড ও কাঁচামালের বিবরণ অন্তভ‚ক্তির জটিলতা নিরসন করা, তৈরী পোশাক শিল্পের ওভেন গার্মেন্টস এর ক্ষেত্রে বার্ষিক নিরীক্ষাকালে আমদানি-রফতানির পরিমাণ নির্ধারণে কেজি’র পরিবর্তে পূর্বের ন্যায় গজ/মিটার বা স্ব-স্ব একক ব্যবহার এবং পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট বন্ড কার্যক্রম সংক্রান্ত বিরাজমান সমস্যাবলী নিয়েও আলোচনা হয়।

কমিশনার কাজী মোস্তাফিজুর রহমান বিজিএমইএ প্রতিনিধিদলের বক্তব্য শুনে আশ্বস্ত করে বলেন, প্রতিনিধিদল উত্থাপিত প্রস্তাবনাগুলো গুরুত্ব সহকারে পর্যালোচনা করে যৌক্তিকতা অনুযায়ী সমাধানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজিএমইএ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ