Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

৪০ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ

ডিএসই সূচক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০২১, ১২:০৩ এএম

সপ্তাহের শেষ দিন গতকাল বৃহস্পতিবার লেনদেনের পুরোটা সময় সূচকের বড় ধরনের ওঠানামার মধ্যে শেষ পর্যন্ত দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইর সূচক সামান্য বেড়েছে। এতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) এর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স পৌঁছে গেছে ৪০ মাসের সর্বোচ্চ অবস্থানে। আগের দিনের চেয়ে গতকাল শেয়ার কেনাবেচা কিছুটা কমায় লেনদেনে আর নতুন রেকর্ড হয়নি। কেননা গত বুধবার ২০১০ সালের ধসের পর লেনদেন দুই হাজার ৭০০ কোটি টাকার নতুন উচ্চতায় গিয়েছিল।

গতকাল ডিএসই প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ১১ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট বেড়ে ছয় হাজার ৬৬ দশমিক ৬৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এই সূচক প্রায় ৪০ মাসের মধ্যে বেশি। এর আগে এর চেয়ে বেশি সূচক ছিল ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। সেদিন সূচক ছিল ছয় হাজার ১০২ পয়েন্ট।

দেশের প্রধান এই বাজারে এদিন লেনদেন আগের দিনের তুলনায় এক দশমিক ১৬ শতাংশ বা ৩১ কোটি ২৯ লাখ টাকা কমেছে। গতকাল ডিএসইতে দুই হাজার ৬৬৯ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা আগের কর্মদিবসে ছিল দুই হাজার ৭০০ কোটি ৫৫ লাখ টাকা।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া শেয়ারের মধ্যে ৫৭ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম বেড়েছে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৬৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২০৯টির এবং কমেছে ১৪৯টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৯টি কোম্পানির শেয়ার দর। খাতওয়ারী লেনদেন বিবেচনায় গতকাল সবচেয়ে বাজে দিন গেছে বীমা খাতের শেয়ারের। এই খাতের অনেক শেয়ারের ক্রেতাও ছিল না। সার্কিট ব্রেকারের সর্বনিম্ন পর্যায়ে লেনদেন হয়েছে অনেক শেয়ারের। তালিকাভুক্ত ৫০টির মধ্যে ৩৫টি বীমা কোম্পানির দাম কমেছে, শতকরা হারে যা ৭০ শতাংশ।

ব্যাংক খাতেও ছিল খারাপ সময়। ৬৮ শতাংশ শেয়ারের দাম কমেছে এ খাতে। তালিকাভুক্ত ৩১টি ব্যাংকের মধ্যে ২১টিরই দাম কমেছে। দরপতনের ধারা থেকে বাদ যায়নি ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ারও। এই খাতের ৫৭ শতাংশ শেয়ারের দাম কমেছে। ২৩টি কোম্পানির মধ্যে ১৩টির শেয়ারের দাম কমেছে। বস্ত্র খাতের বেশির ভাগ কোম্পানির দাম বাড়া এবং বেক্সিমকো লিমিটেডসহ আরো কিছু শেয়ারের দাম বাড়ার কারণে শেষ পর্যন্ত সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারাতে সপ্তাহ শেষ হয়েছে। বস্ত্র খাতের ৫৬টি কোম্পানির মধ্যে ৪৮টির শেয়ারের দাম বেড়েছে, শতকরা হারে যা ৮৬ শতাংশ।

ডিএসইর অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক তিন দশমিক ২৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ২৯৯ দশমিক ৪৪ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক দুই দশমিক ৪৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে দুই হাজার ২০৫ দশমিক শূণ্য নয় পয়েন্টে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডিএসই সূচক
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ