Inqilab Logo

শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

প্রতিপক্ষ স্বতন্ত্র প্রার্থীর হামলায় নৌকার প্রার্থীর ভাইসহ আহত -১২

রামগতির চররমিজ ইউপি নির্বাচন

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০২১, ১১:১৮ এএম

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চররমিজ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর ভাইসহ ১২ কর্মী-সমর্থক আহত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাতে ইউনিয়নটির বিবিরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও পাঁচটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোজাহিদুল ইসলাম দিদার অভিযোগ করেন, রাত ৮টার দিকে বাজারের একটি গলিতে তার ভাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহাবউদ্দিন আলমগীর কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ওই সময় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শরাফত আলী ভূঁইয়ার আনারস প্রতীকের সমর্থনে বাজারে মিছিল বের করা হয়। একপর্যায়ে মিছিলকারীরা স্লোগান দিয়ে তাদের ওপর হামলা করে। এতে তার ভাই আলমগীর ও সমর্থক বাবলু আহত হন। পরে দু'পক্ষের মধ্যে বাজারে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। রাত ১১টার দিকে কর্মী-সমর্থক নিয়ে তিনি বাড়িতে যাওয়ার সময় শরাফত আলী ভূঁইয়ার লোকজন আবারও তাদের ওপর হামলা করে। এতে তার সমর্থক মামুন, আলকাছ, সোহেলসহ ১০ জন আহত হন। এ সময় যুবলীগ নেতা আরাফাত সানী ও আলতাফ হোসেনের দোকানসহ চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং ছাত্রলীগ নেতা রায়হানের মোটরসাইকেলসহ পাঁচটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

এলাকাবাসী জানান,ঐ এলাকায় হঠাৎ শরাফত আলী ভুঁইয়া নামের এক টাকাওয়ালা লোকের আগমন পরবর্তী আসন্ন ইউপি নির্বাচনে তার অংশ গ্রহণ নিয়েই মূলত ধাপে ধাপে চলছে রক্তপাতের ঘটনা। তৈরী করে রেখেছেন এক অস্ত্রধারী লাঠিয়াল বাহিনী। কথায় কথায় ঐ অস্ত্রধারী বাহিনী নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েন অন্য প্রার্থীর প্রচার মিছিলে।

নোয়াখালীর বসুরহাটের মত এক ভীতিকর অবস্থা চলছে লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার বিবিরহাট নামক এলাকায়। একশ্রেণির ভূমিদস্যু ও অবৈধ কালো টাকার মালিকরা নিজ নিজ এলাকায় এক অস্ত্রধারী ক্যাডার বাহিনী তৈরী করে প্রভাব বিস্তার করে রেখেছেন।ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করতে ও টাকার জোরে প্রতিদিন ঐ এলাকায় শরাফত আলী ভুঁইয়ার কর্মীসমর্থকরা ওপেন লাঠি হাতে মিছিল করা সহ এক ভীতিকর পরিবেশ তৈরী করে রাখেন।আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমানে চররমিজ ইউনিয়নের বিবিরহাট এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।যেকোন সময় বিবিরহাট এলাকায় রক্তপাত সহ প্রাণহানি ঘটার আশংকা এলাকাবাসীর।

এবিষয়ে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী শরাফত আলী ভূঁইয়া অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নির্বাচনে সাধারণ ভোটারদের সমর্থন নিতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন।

রামগতি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, সংবাদ পাওয়ার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।বিবিরহাট এলাকায় যেকোন ধরনের অরাজকতা পুলিশ কঠোর হস্তে দমন করবে। এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লক্ষ্মীপুর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ