Inqilab Logo

রোববার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮, ২১ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ত্রাণ দিয়ে ফেরার পথে খুলনায় বিএনপি নেতাদের পুলিশের লাঠিপেটা, আহত দুই

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ জুন, ২০২১, ৭:৩১ পিএম

খুলনার কয়রা উপজেলায় ইয়াস দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করে খুলনা ফেরার পথে বিএনপি নেতাদের লাঠিপেটা করেছে পুলিশ। এতে বিএনপির দুই নেতা আহত হয়েছেন। শনিবার দুপুরে উপজেলার চাঁদআলী সেতুর কাছে এ ঘটনা ঘটে। যদিও পুলিশ এ ঘটনা অস্বীকার করেছে।

কয়রা উপজেলা বিএনপির সভাপতি এড. মোমরেজুল ইসলাম জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ১১টায় কালনা মাদ্রাসা মাঠে ত্রাণ বিতরণ শেষে দশহালিয়া বাঁধ পরিদর্শনে যান জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ। পরে সেখান থেকে ফিরে এসে গাড়ীতে করে পাইকগাছায় ত্রাণ বিতরণের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তারা। বিএনপির নেতাদের বহনকারী গাড়ী চাদআলী সেতুর দক্ষিণপারে পৌঁছালে সেখানে পুলিশ তাদের গতিরোধ করে। তারা বাঁধ পরিদর্শনে যাওয়ার ব্যাপারে অনুমতি ছিল কিনা জানতে চান। এক পর্যায়ে পুলিশ অকথ্য ভাষায় নেতাদের গালিগালাজ করতে থাকে। এ সময় গাড়ী থেকে নেমে নেতারা পুলিশকে নিবৃত হতে অনুরোধ করেন। হঠাৎ পুলিশ এলোপাথাড়ি লাঠিপেটা শুরু করলে যুবদলের দুই নেতা আহত হয়। তারা হলেন, যুবদল নেতা মেহেদী হাসান মিলন ও শামীম আশরাফ।

কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষে ইয়াস দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ দিয়ে পাইকগাছায় ফেরার পথে পুলিশ অহেতুক হামলা করে। হামলার পরে পুলিশ আমাদের গাড়ী কোথাও দাঁড়াতে না দিয়ে পাইকগাছা উপজেলা পার করে দেয়। সেখানে দুর্গত মানুষকে ত্রাণ দেওয়া কথা থাকলেও এ ঘটনায় তা সম্ভব হয়নি। এমনকি আসার পথে মসজিদে জোহরের নামাজ পড়তেও বাঁধা দেয় তারা।

খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি শফিকুল আলম মনা বলেন, কয়রায় ত্রাণ বিতরণের জন্য জেলা প্রশাসকের অনুমতি থাকা সত্ত্বেও পুলিশ বাঁধা দিয়েছে। বাঁধ পরিদর্শনের জন্য পুলিশের অনুমতি লাগে তা আমাদের জানা ছিল না। এটা খুবই দুঃখজনক।

কয়রা থানার ওসি রবিউল ইসলাম লাঠিপেটার ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, তারা (বিএনপি) সুষ্ঠুভাবে ত্রাণ বিতরণ করে চলে গেছেন। আমরা তাদের সহযোগীতা করেছি। সেখানে লাঠিপেটার ঘটনা কেন ঘটবে। হয়তো ত্রাণ নিতে আসা লোকজনের অনেকেই ত্রাণ না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। সেই দায় পুলিশের উপর চাপানোর চেষ্টা করছেন তারা।

উল্লেখ্য কয়রা উপজেলায় ইয়াস দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের জন্য শনিবার বেলা ১১ টায় বিএনপির পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচী ছিল। উপজেলা বিএনপির সভাপতি এড, মোমরেজুল ইসলামের সভাপতিত্বে কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাডভোকেট শফিকুল আলম মনা। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক কুদরতে আমীর এজাজ খান, মহানগর বিএনপি উপদেষ্টা ও ত্রাণ কমিটির সদস্য সচিব সেকেন্দার জাফরুল্লাহ খান সাচ্চু, বিএনপি নেতা মোল্লা খায়রুল ইসরাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, শেখ আবু হোসেন বাবু প্রমুখ। এ সময় ৫০০ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুলনা


আরও
আরও পড়ুন