Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্রকে আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে : চীন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০২১, ১২:০২ এএম


ইনকিলাব ডেস্ক : চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছেন, ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরতে হলে আমেরিকাকে তেহরানের ওপর আরোপিত সব নিষেধাজ্ঞা আগে প্রত্যাহার করতে হবে। অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় যখন পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের ধারাবাহিক সংলাপ চলছে তখন শুক্রবার এ মন্তব্য করেন ওয়াং ই। আমেরিকা ২০১৮ সালের মে মাসে এই সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে যায়। শুক্রবার জেনেভায় নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক এক বৈঠকে বক্তব্য দিতে গিয়ে চীনা স্টেট কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেন, “পরমাণু সমঝোতায় ফেরার জন্য প্রথমে স্বাভাবিকভাবে যে কাজটি করতে হবে তা হচ্ছে ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার।” তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের আহবান জানান এবং ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে আমেরিকার দাম্ভিক আচরণের তীব্র সমালোচনা করেন। ওয়াং ই বলেন, ইরান ও আমেরিকার পরমাণু সমঝোতায় পুরোপুরি ফিরে আসার আলোচনা যদিও চূড়ান্ত পর্যায়ে উপনীত হয়েছে তারপরও সবগুলো পক্ষ যত তাড়াতাড়ি প্রয়োজনীয় রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিয়ে বিষয়টির সমাধান করে ফেলে ততই মঙ্গল। চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইরানের পরমাণু সমঝোতা ছিল বহুপক্ষীয় কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ফসল, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের গুরুত্বপূর্ণ ভিত্তি এবং মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার অন্যতম হাতিয়ার। ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতাকে আবার আগের অবস্থায় সক্রিয় করার জন্য অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় গত এপ্রিল মাস থেকে ইউরোপীয় দেশগুলোর সাথে ইরানের সংলাপ চলছে। ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের নীতি অনুসরণ করে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেন। সিনহুয়া, ইরনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ