Inqilab Logo

শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০২ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগে লিখিত পরীক্ষার নির্দেশনা

প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : অনিয়ম এড়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগে লিখিত পরীক্ষা নিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এছাড়া সরকারবিরোধী কর্মকা-ে লিপ্ত ‘অপরাধীদের’ নিয়োগ ঠেকাতে সরকারি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগে ‘পুলিশ ভেরিফিকেশন’ করতেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে থেকে পাওয়া গোপনীয় গোয়েন্দা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনকে (ইউজিসি) এসব নির্দেশনা দিয়েছে। বাংলাদেশে বর্তমানে ৩৮টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে, এর ৩৭টিতে শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। সরকারি-বেসরকারি সব বিশ্ববিদ্যালয় দেখভালের দায়িত্ব ইউজিসির। এখন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক নিয়োগে ফলাফলের ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হয়। পাশাপাশি নিয়োগের আগে মৌখিক পরীক্ষায় বসতে হয় নিয়োগ প্রার্থীদের।
নতুন এই নির্দেশনা অনুযায়ী মৌখিক পরীক্ষার পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা নেয়ার কথা বলা হয়েছে। ইউজিসি সচিবকে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ইদানিং বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক ও কর্মকর্তা নিয়োগের ক্ষেত্রে বিভিন্ন জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। এ অনভিপ্রেত অবস্থার সমাধানকল্পে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে থেকে পাওয়া গোয়েন্দা বিভাগের গোপনীয় প্রতিবেদনে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক ও কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়ার লক্ষ্যে দুটি সুপারিশ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে- শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগে শুধু মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়, এতে অনিয়মের সুযোগ তৈরি হয়। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষার পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা নেয়ার উদ্যোগ নেয়া হলে প্রার্থীর মেধা যাচাই করা সহজ হবে এবং অনিয়মের সুযোগ হ্রাস পাবে। এছাড়া পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হওয়ায় শিক্ষক ও কর্মকর্তা নিয়োগের পূর্বে কোনো পুলিশ ভেরিফিকেশন বা গোয়েন্দা সংস্থা মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্যাদি যাচাই হয় না। ফলে সরকারবিরোধী কর্মকা-ে লিপ্ত ব্যক্তি বা অপরাধীরা নিয়োগের সুযোগ পায়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশের আগে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করে নিয়োগ করা যাবে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এসব নির্দেশনা অনুসরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে তা মন্ত্রণালয়কে জানাতে ইউজিসিকে অনুরোধ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগে লিখিত পরীক্ষার নির্দেশনা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ