Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৮ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

তিন হাজার ছাড়ল শনাক্ত, মৃত্যু ৫৪

দেশে করোনাভাইরাস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ জুন, ২০২১, ১২:০২ এএম

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস পজিটিভ রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে । একদিনে করোনায় মারা গেছেন ৫৪ জন এবং শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫০ জন। গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

তথ্য অনুযায়ী, গত ৩০ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত সাতদিনে দেশে ১১ হাজার ৯২৮ জনের শরীর নভেল করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। পরের সপ্তাহে অর্থাৎ ৬ থেকে ১২ জুন পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয় ১৫ হাজার ১৭২ জন। সপ্তাহের ব্যবধানে রোগী শনাক্তের সংখ্যা ২৭ দশমিক ২০ শতাংশ বাড়লেও সে তুলনায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়েনি। দুই সপ্তাহে যথাক্রমে ১ লাখ ১৯ হাজার ২০২ ও ১ লাখ ২২ হাজার ১০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ সময়ে মৃত্যু বেড়েছে ৭ দশমিক ১৪ শতাংশ। আর সুস্থতা বেড়েছে ২১ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৫১২টি পরীক্ষাগারে ২০ হাজার ৬০২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সোমবার ৩ হাজার ৫০ জন রোগীর শরীরে ভাইরাস শনাক্ত হয়। আগের দিন ২ হাজার ৪৩৬ জন কভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছিল। এ পর্যন্ত দেশে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৮ লাখ ২৯ হাজার ৯৭২ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৫৪ জন করোনা পজিটিভ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। আগের দিন ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল। গতকাল পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩ হাজার ১৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সর্বশেষ ২ হাজার ৫৬৪ জন রোগী সুস্থ হওয়ায় মোট সুস্থতার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৬৮ হাজার ৮৩০ জনে। একদিনে যারা মারা যাওয়া ৫৪ জনের মধ্যে ৩৯ জন পুরুষ ও ১৫ জন নারী। যাদের ৪০ জন সরকারি, ১০ জন বেসরকারি হাসপাতালে ও চারজন বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। বিভাগভিত্তিক হিসাবে মৃতদের ১৩ জন ঢাকা, ১৪ জন চট্টগ্রাম, ১৩ জন রাজশাহী, ৭ জন খুলনা, ৫ জন রংপুর এবং একজন করে ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন । এ পর্যন্ত মৃত ১৩ হাজার ১৭২ জনের মধ্যে ৯ হাজার ৪৭৭ জন পুরুষ ও ৩ হাজার ৬৯৫ জন নারী।
দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। চলতি বছরের ৩১ মে করোনা রোগীর সংখ্যা আট লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে গত ৭ এপ্রিল একদিনে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৬২৬ জন কভিড-১৯ পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়। করোনা রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর প্রথম মৃত্যু হয়। এর মধ্যে ১১ জুন মৃত্যুর সংখ্যা ১৩ হাজার অতিক্রম করে। দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণের মধ্যে গত ১৯ এপ্রিল দৈনিক হিসাবে সর্বোচ্চ ১১২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে প্রথম নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এরপর মাত্র দুই মাসের ব্যবধানে শতাধিক দেশে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়লে গত বছরের ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন