Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

কিংসলে এখন শুধুই বাংলাদেশের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

নাইজেরিয়ান ফুটবলার এলিটা কিংসলে এখন পুরোপুরিই বাংলাদেশি। শতাব্দীর সেরা ক্রীড়াবিদ বক্সার মোহাম্মদ আলী ও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক কোচ ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান কিংবদন্তি গর্ডন গ্রিনিজের পর বাংলাদেশের পাসপোর্ট পেলেন বসুন্ধরা কিংসের এই গোল মেশিন। গতকাল সকালে দশ বছর মেয়াদী বাংলাদেশের ই-পাসপোর্ট হাতে পেয়েছেন ‘সাবেক’ নাইজেরিয়ান তারকা। লাল-সবুজ পাসপোর্ট পেয়ে আবেগাপ্লুত কিংসলে বলেন, ‘আমি ফুটবলার। সব সময়ই খেলতে চাই। নাগরিকত্ব পেলেও বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের জন্য খেলতে পারছিলাম না। এখন আমি বাংলাদেশে ফুটবল খেলার জন্য মুক্ত ও বৈধ। আর কোনো বাধা রইলো না। অবশেষে আমার স্বপ্নটা পূরণ হয়েছে। আমি শীঘ্রই মাঠে নেমে ক্লাব ও বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে গোল করতে চাই এবং দেশ ও দলকে জেতাতে চাই।’
বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে বিদেশিদের মধ্যে প্রথম পাসপোর্ট পেয়েছিলেন সর্বকালের সেরা বক্সার প্রয়াত মোহাম্মদ আলি। ১৯৭৮ সালে বাংলাদেশ সফরে এসে সম্মাননাসূচক নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট পান তিনি। এর প্রায় বিশ বছর পর জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান কোচ গর্ডন গ্রিনিজকে সম্মানসূচক নাগরিকত্বের পাশাপাশি ১৯৯৭ সালে বাংলাদেশের পাসপোর্ট প্রদান করা হয়েছিল। গর্ডনের প্রায় দুই যুগ পর আরেকজন ‘বিদেশি’ ক্রীড়াবিদ বাংলাদেশের পাসপোর্ট পেলেন। বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার শর্ত হিসেবে কিংসলেকে বাতিল করতে হয়েছে তার জন্মভূমি নাইজেরিয়ার নাগরিকত্ব। সেই প্রক্রিয়া শেষ করেই আবেদন করেন লাল-সবুজের সবুজ পাসপোর্টের জন্য।
কিংসলে বাংলাদেশে ফুটবল খেলছেন ২০১১ সাল থেকে। ওই বছর ঘরোয়া সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ২০১১ সালে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের হয়ে খেলা শুরু করেন তিনি। এরপর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র, টিম বিজেএমসির হয়ে খেলেছেন। সর্বশেষ ২০২০ সালে করোনার কারণে বাতিল হওয়া লিগে ছিলেন আরামবাগে। এই লিগের পাঁচ ম্যাচে তিনি গোল করেছিলেন ৫টি। এরই মধ্যে বছর পাঁচেক আগে বাংলাদেশের মেয়ে লিজাকে বিয়ে করেন এলিটা। তখন থেকেই তার বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার চেষ্টা।
গত মার্চে বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে নাগরিকত্ব সনদ পেয়েছিলেন কিংসলে। লকডাউনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে দেরি হয় তার। জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট-জন্মনিবন্ধন না থাকায় বাংলাদেশি হিসেবে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় লেগে শুরু থেকে মাঠে নামতে পারেননি। এক সপ্তাহ আগে জাতীয় পরিচয়পত্র পেয়েছেন। আর কাল পেলেন ই-পাসপোর্ট। এবার বসুন্ধরার হয়ে ঘরোয়া লিগে অংশ নেয়ার বৈধতা পেলেন তিনি। বসুন্ধরা কিংস এএফসি কাপ খেলবে। এএফসি কাপ কিংসলেকে খেলানোর জন্য ফিফা প্লেয়ার স্ট্যাটাস কমিটির অনুমতির প্রয়োজন। এটি নিয়ে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে তার ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

 



 

Show all comments
  • Sultan Ahamed Biplob ১৭ জুন, ২০২১, ৫:১৯ এএম says : 0
    At least Bangladesh will able to score some goals if proper service provided.
    Total Reply(0) Reply
  • নূরুজ্জামান নূর ১৭ জুন, ২০২১, ৫:১৯ এএম says : 0
    I hope Mr. Kingslay reads this: We Bangladeshis love you.
    Total Reply(0) Reply
  • নোমান মাহমুদ ১৭ জুন, ২০২১, ৫:১৯ এএম says : 0
    স্বাগতম কিংসলে
    Total Reply(0) Reply
  • তানিম আশরাফ ১৭ জুন, ২০২১, ৫:১৯ এএম says : 0
    বাংলাদেশিরা দুনিয়ার সব দেশে গিয়া পাসপোর্ট নেয়। আর কিংসলের মত মেধাবীদের বিয়ে করে পাসপোর্ট নিতে হয়, তাও বছরের পর বছর অপেক্ষা করে।
    Total Reply(0) Reply
  • জোবায়ের খাঁন ১৭ জুন, ২০২১, ৫:২০ এএম says : 0
    CONGRATULATIONS.
    Total Reply(0) Reply
  • সোয়েব আহমেদ ১৭ জুন, ২০২১, ৫:২০ এএম says : 0
    so good news
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন