Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৫ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ভুটানে পাহাড়ি ঢলে ১০ জনের মৃত্যু, নেপালে নিখোঁজ ৭

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

ভুটানে প্রত্যন্ত পর্বতে ভারি বৃষ্টিতে সৃষ্ট হড়কা বানে একটি ক্যাম্প ভেসে গিয়ে ১০ জনের মৃত্যু ও পাঁচ আহত হয়েছেন। প্রতিবেশী নেপালে বন্যায় সাত জন নিখোঁজ হয়েছেন। ভুটানের একদল গ্রামবাসী মূল্যবান ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত ছত্রাক কিড়া-জড়ি সংগ্রহ করতে ওই পর্বতে গিয়েছিলেন। রাতে তাঁবুতে ঘুমানোর পর মধ্যরাতের একটু পরে হড়কা বান তাদের ভাসিয়ে নিয়ে যায়। রাজধানী থিম্পু থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার উত্তরে লায়া শহরের নিকটবর্তী একটি এলাকায় ঘটনাটি ঘটে বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।
এক বিবৃতিতে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং বলেছেন, ‘উচ্চভ‚মিতে কিড়া-জড়ি সংগ্রাহকদের একটি দল শোচনীয় ঘটনার শিকার হয়েছে শোনার পর আমাদের মন আজ লায়ার ওই লোকদের জন্য ভারাক্রান্ত হয়ে আছে’।
ঘটনাস্থল থেকে আহতদের সরিয়ে আনতে দুটি হেলিকপ্টার পাঠানো হয়েছে আর ভুটানের সশস্ত্র বাহিনীর উদ্ধারকারীরা ঘটনাস্থলে দিকে রওনা হয়েছেন। কাছাকাছি সড়ক থেকে ১১ ঘণ্টা হেঁটেই শুধু সেখানে পৌঁছানো যাবে বলে জানা গেছে। ভুটান ও প্রতিবেশী নেপালের গ্রামবাসীরা প্রতি বছর কিড়া-জড়ি সংগ্রহ করতে সুউচ্চ তৃণভ‚মিতে যায়। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে তিন-চার কিলোমিটার উচ্চতায় মানব স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী বলে কথিত এসব কিড়া-জড়ি পাওয়া যায়। বিশ্ববাজারে এসব অত্যন্ত উচ্চমূল্যে বিক্রি হয়।
ভ‚টানের সংবাদপত্রের বিবরণে বলা হয়েছে, দুটি পাহাড়ের মাঝে একটি স্রোতধারার পাশে তাঁবু গেড়েছিলেন ওই গ্রামবাসীরা। ওই স্রোতধারা ধরে বানের পানি নেমে এসে তাদের ভাসিয়ে নিয়ে যায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।
নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা দিল কুমার তামাং জানান, চীনের তিব্বত অঞ্চলের সীমান্তবর্তী সিন্ধুপালচক জেলায় রাতভর বৃষ্টির পর মেলামচি নদীতে দেখা দেয়া হঠাৎ বন্যায় সাত জন নিখোঁজ হয়েছেন। বন্যায় ওই এলাকায় বহু ঘরবাড়ি ডুবে গেছে এবং তারা ক্ষয়ক্ষতির বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মেলামচি থেকে বেশ কয়েকজন লোক তাদের তল্পিতল্পাসহ উঁচু এলাকায় চলে গিয়েছিলেন, তারা পরিত্যক্ত বাড়িগুলোতে আটকা পড়ার পর সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টারগুলো তাদের উদ্ধার করেছে। নেপালের কর্তৃপক্ষ দেশটির নারায়নি নদীর তীরে বসবাসরত লোকজনকে সতর্ক থাকতে বলেছে, কারণ নদীটির পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বইছে। মৌসুমি বায়ুর প্রভাব শুরু হওয়ার পর থেকে গত তিন দিন ধরে নেপাল ও ভুটানে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হয়েছে। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন