Inqilab Logo

বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সাংবাদিকের যে প্রশ্নে হঠাৎ মেজাজ হারিয়ে ক্ষমা চাইলেন বাইডেন!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ৫:১৭ পিএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বুধবার ঐতিহাসিক এক বৈঠকে মিলিত হন। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত হয় ওই বৈঠক । কয়েক ঘণ্টার বৈঠক শেষে বাইডেন যখন বেরিয়ে যান, তখন সিএনএন-এর হোয়াইট হাউস প্রতিনিধি কেইটলান কলিন্স একটি প্রশ্ন করেন। আর তাতেই মেজাজ হারিয়ে ফেলেন বাইডেন। -সিএনএন

বাইডেনকে কেইটলান কলিন্সের প্রশ্ন ছিল, “আপনি কেন এত আত্মবিশ্বাসী যে, বৈঠকের পরই পুতিন তার আচরণ পরিবর্তন করে ফেলবেন।” প্রশ্ন শুনেই দাঁড়িয়ে যান বাইডেন। রেগে গিয়ে আঙ্গুল তুলে কথা বলতে বলতে এগিয়ে যান সাংবাদিকদের দিকে। বাইডেন বলেন, আমি আত্মবিশ্বাসী নই যে তিনি (পুতিন) তার আচরণ পরিবর্তন করবেন। কোথায় পেলেন এটা-আপনারা সব সময় কীসব প্রশ্ন করেন? আমি কখন বলেছি যে, আমি আত্মবিশ্বাসী? তিনি বলেন, “আমি যা বলেছি তা হল- সহজ করে বুঝুন- আমি বলেছি, “পৃথিবীর বাকী অংশ যদি তাদের প্রতিক্রিয়া দেখায় এবং এটি বিশ্বে তাদের অবস্থানকে হ্রাস করে তবে তাদের আচরণের পরিবর্তন হবে।”

বাইডেন আরও বলেন, আমি কোনও কিছুর বিষয়েই আত্মবিশ্বাসী নই। আমি কেবল বাস্তব কথাটা বলেছি।তবে এই ঘটনার জন্য ওই সাংবাদিকের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। জেনেভার ত্যাগের প্রাক্কালে ‘এয়ার ফোর্স ওয়ানে’ ওঠার আগে তিনি সাংবাদিকদের দিকে এগিয়ে যান এবং ওই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি সাংবাদিক কেইটলান কলিন্সের নাম উল্লেখ করে তার কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন। তবে তিনি এও বলেন, সাংবাদিকরা কখনই তাকে ইতিবাচক প্রশ্ন করেন না। বাইডেন বলেন, আমার কাছে মনে হয়- একজন ভাল সাংবাদিক হওয়ার জন্য আপনাদের নেতিবাচক হতে হয়। আর এ কারণেই জীবন সম্পর্কে আপনাদের দৃষ্টিভঙ্গিও নেতিবাচক হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাইডেন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ