Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

বেতাগীর মোকামিয়ায় নৌকা মার্কার প্রার্থীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগ

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ৯:০১ পিএম

বরগুনার বেতাগীর মোকামিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সুজনকে নৌকা মার্কার প্রার্থী মো: জালাল গাজীর সমর্থকরা অপহরণের চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আত্মরক্ষার জন্য সে থানায় আশ্রয় নিয়েছেন। নৌকা মার্কার কর্মীদের দ্বারা স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ কর্মীদের নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ রয়েছে। খাবারসহ তিনটি অটোরিকশা নিয়ে যায় নৌকার কর্মী-সমর্থকরা। স্বতন্ত্র প্রার্থী পরিবারের স্বজন এবং তার কর্মী সমর্থকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এর আগেও স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। ওই ঘটনায় বেতাগী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী বৃহস্পতিবার (১৭জুন) সকালে উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নের মোল্লারহাঁট বাজার সংলগ্ন চেয়ারম্যান বাড়ির চাল, ডাল, কাচাঁবাজার নিয়ে আসা তিনটি অটোগাড়ি আটকিয়ে রাখাসহ কর্মীদের বাড়ির ভিতরে অবরুদ্ধ করে রাখে নৌকা মার্কার সমার্থকরা। তাদের ভয়ে ওই বাড়ির নারী-পুরুষ শিশুরা ভয়ে তটস্থ হয়ে পড়ে। প্রত্যেকের চোখে মুখে হতাশার ছাপ। যেকোনো সময় নৌকার কর্মী সমর্থকদের হামলায় হাত হতে এমন আতঙ্কে দিন কাটছে তাদের। স্বতন্ত্র প্রার্থী অভিযোগ করেছেন ইউনিয়নের কাচারি বাড়ি দুইটি দোকানে এবং স্থানীয় রিপন হাওলাদারের বাড়িতে নৌকার কর্মী সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্র মজুদ করেছেন। এলাকায় ছাত্রলীগ-যুবলীগের দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে অবস্থান করতে দেখা গেছে। তাদের বাধার মুখে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা তার বাড়িতে প্রবেশ করতে পারছেন না। কোনো কর্মী-সমর্থক স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতে প্রবেশ করলে তাকে ধরে নিয়ে মারধর করে নৌকার কর্মীরা।

মোকামিয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো: জালাল গাজীর ভাতিজা মো: রাজিব এবং মোকামিয়া ইউনিয়নের ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াদের নেতৃত্বে সাবেক ইউপি সদস্য আল-আমিন, পুতুল ও বাদল মিত্রসহ আরও অনেকে বর্তমান চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সুজন মল্লিকের বাড়ির সামনে অবস্থান করে। একই এলাকার খানের হাট বাজারে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা চেকপোস্ট বসিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের মারধর এবং বাধা দিচ্ছেন। এতে নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা।

মাহবুব আলমের সমর্থক আল আমিন (৪০) বলেন, চেয়ারম্যান বাড়ির পশ্চিম পাশে কাচারিবাড়ি বাদল মিত্রর দোকান একটি দেশিয় অশ্র রাখার গোডাউন রয়েছে। তিনি আরও বলেন আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আমাদের জীবনের নিরাপত্তা চাচ্ছি।

এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো: মাহবুবুল আলম সুজন মল্লিক বলেন, আমি জীবননাশের মধ্য আছি এবং আমি বাড়ি যাওয়ার পথে আমার গাড়ী যুবলীগ কর্মীরা গাড়ী ধাওয়া করে। তিনি আরও বলেন এরকম পরিবেশ থাকলে নির্বাচন করা সম্ভব না। তারা হুমকি দিয়েছে আমার বাচ্চা আমার সন্তানদের তুলে নিবে। এমতাবস্থায় আমি আমার পরিবার এবং আমার সর্মথকরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। আমি নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরির জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। নির্বাচনী মাঠে সমানভাবে সমঅধিকার চাচ্ছি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চেয়ে নৌকা মার্কার প্রার্থী মো: জালাল গাজী মুঠোফোনে কল দিলে তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেন।

বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, আমাদের সার্বক্ষণিক একটি টিম ওখানে কাজ করছে। আমাদের পুলিশ প্রশাসন তৎপর রয়েছে। মাহাবুবুল আলম সুজনকে অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে মর্মে ইতোমধ্যে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরগুনা


আরও
আরও পড়ুন