Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পরমাণু যুদ্ধ এড়িয়ে চলতে হবে

জেনেভায় বৈঠক শেষে পুতিন ও বাইডেনের যৌথ বিবৃতি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২১, ১২:০৭ এএম

সুইজারল্যান্ডের জেনেভার ভিলা লা গ্রেঞ্জে স্থানীয় সময় বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের মধ্যে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রায় চার ঘণ্টার বৈঠক শেষে দুই প্রেসিডেন্ট এক যৌথ বিবৃতিতে শিগগিরই পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে দ্বিপক্ষীয় কৌশলগত সংলাপ শুরু করতে নিজেদের সম্মতির কথা ঘোষণা করেছেন। বাইডেন ও পুতিনের যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমেরিকা ও রাশিয়া এ পর্যন্ত একথা প্রমাণ করেছে যে, তারা চরম উত্তেজনাকর মুহ‚র্তেও সামরিক সংঘাত ও পরমাণু যুদ্ধ এড়িয়ে যেতে সক্ষম। বিবৃতিতে পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় স্টার্ট চুক্তি নবায়নের প্রতি ইঙ্গিত করে বলা হয়েছে, এ থেকে বোঝা যায়, দু’দেশ পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। যৌথ বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, “পরমাণু যুদ্ধে কেউ বিজয়ী হতে পারবে না কাজেই যেকোনো মূল্যে এ ধরনের যুদ্ধ এড়িয়ে চলা উচিত।” এদিকে পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাতের পর এক সংবাদ সম্মেলনে বাইডেন বলেছেন, রাশিয়া ও আমেরিকার মধ্যে সম্পর্ক ও সহযোগিতার উন্নয়ন শুধু দু’টি দেশের স্বার্থ রক্ষা করবে না সেইসঙ্গে তা গোটা বিশ্বের কল্যাণ বয়ে আনবে। তিনি ইরানের পরমাণু সমঝোতা নিয়েও রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলাপ হয়েছে বলে জানান। তবে এই সমঝোতা থেকে আমেরিকা একতরফাভাবে বেরিয়ে যাওয়ার কারণে যে চলমান অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে সে বিষয়টি বেমালুম এড়িয়ে যান। মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেন, আমেরিকা ও রাশিয়ার যৌথ স্বার্থে দু’টি দেশ এই নিশ্চয়তা অর্জন করতে চায় যে, ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করছে না। এদিকে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন, জেনেভা আলোচনার পরে টানাপোড়েন কমিয়ে আনার প্রথম পদক্ষেপে তিনি এবং প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাদের রাষ্ট্রদ‚তদের ওয়াশিংটন এবং মস্কোতে তাদের পদে ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়েছেন। দুই বিদেশি নেতার মধ্যে প্রায় তিন ঘণ্টার বেশি আলোচনার পর পুতিন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন যে, দু’টি প্রতিনিধি দলের মধ্যে কোনো বৈরিতা নেই। তিনি বৈঠককে ‘গঠনমূলক’ হিসাবে বর্ণনা করেন। কয়েক মাস ধরে কোনো দেশেই কোনো প্রবীণ ক‚টনীতিককে নিয়োগ দেয়া হয়নি এবং স্ব স্ব রাষ্ট্রদ‚তরা কখন ফিরে আসবেন তা স্পষ্ট ছিল না। পুতিন আরো বলেন, তিনি এবং বাইডেন একটি সমঝোতায় পৌঁছেছেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সা¤প্রতিক সময়ে হামলার ঘটনার পরে উভয় দেশ সাইবার নিরাপত্তার বিষয়ে আলোচনা শুরু করবে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের এ বৈঠক চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা স্থায়ী হবে বলে আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু তা তিন ঘণ্টার কিছু বেশি সময় স্থায়ী হয়। জেনেভার ১৮ শতকের গ্র্যান্ড ভিলায় অনুষ্ঠিত দুই নেতার বৈঠককে গঠনমূলক হিসেবে উল্লেখ করেছেন পুতিন। অন্যদিকে বাইডেনও বৈঠককে ইতিবাচক হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। যদিও আগে থেকেই এ শীর্ষ সম্মেলন নিয়ে কোনও পক্ষের তরফেই খুব বেশি প্রত্যাশা ছিল না। তবে উভয় পক্ষই মনে করেছে, দুই নেতার একসঙ্গে বসা প্রয়োজন। অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, হ্যাকিং, মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ও ইউক্রেন ইস্যুর মতো নানা বিষয়ে দীর্ঘদিন থেকেই দুই দেশের সম্পর্কে অস্থিরতা বিরাজ করছে। তবে বুধবারের শীর্ষ সম্মেলনের পরে পুতিন জানান, তাদের গঠনমূলক আলোচনায় কোনও বৈরীতা ছিল না। শীর্ষ সম্মেলেনের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পুতিন স্বীকার করেন, বৈঠকে বাইডেন মানবাধিকারের বিষয়টি তুলেছেন। রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সাই নাভালনির পরিণতি এবং বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে মস্কোর আচরণ নিয়েও কথা বলেছেন বাইডেন। ইউএসএ টুডে, ডয়চে ভেলে, আল-জাজিরা, রয়টার্স।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুতিন

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ