Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ব্যাংক ও শেয়ারবাজার আইসিইউতে

সংসদে প্রস্তাাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২১, ১২:০৬ এএম

দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো ভয়াবহ দুর্যোগ কবলিত। ঘূর্ণিঝড়দুর্গত উপক‚লের মতো আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বিপর্যস্ত। বলা যায় আছে। সর্বত্র চলছে মেগা লুটপাট। এ অবস্থায় বাজেট বাস্তবায়ন মোটেও সম্ভব নয়। গতকাল জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপি’র সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদ এ কথা বলেন। অন্য দিকে আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, দেশে লুটপাট ও হত্যার রাজনীতি জিয়াউর রহমান শুরু করেছিলেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে এই আলোচনায় আরো অংশ নেন সরকারি দলের সংসদ সদস্য জিল্লুল হাকিম, সলিমুদ্দিন তরফদার, নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন, আ ক ম সারোয়ার জাহান, আবু রেজা মোহাম্মদ নিজামুদ্দিন, মো. শফিউল ইসলাম, শফিকুল আলম খান, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, আনোয়ারুল আজিম আনার, শাহে আলম ও শামসুল আলম দুদু, ওয়ার্কার্স পার্টির বেগম লুৎফুন্নেসা খান, তরিকত ফেডারেশনের নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, বিকল্প ধারার আবদুল মান্নান, জাতীয় পার্টির বেগম রওশন আরা মান্নান ও নাসরিন জাহান রত্না । বিএনপি’র সদস্য মো. হারুনুর রশিদ বলেন, এবারের বাজেট অত্যন্ত বৈদেশিক নির্ভর। এবারের বাজেট ৫০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ঘাটতির বাজেট। এই বাজেট বাস্তবায়ন করোনাকালে মোটেই সম্ভব নয়। সেই দক্ষতাও নেই। এই মহাজোট সরকারের এটি ১৩তম বাজেট। এর আগে ১২টি বাজেট সংসদে উত্থাপিত হয়। কোনোটিই বাস্তবায়িত হয়নি। তিনি বলেন, একটি রাষ্ট্রের আর্থিক কাঠামোতে দৃষ্টি দিতে গেলে সেখানে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর অবস্থার দিকে তাকাতে হবে। আমি নিঃসন্দেহে বলব বাংলাদেশের শেয়ার বাজার ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি আছে। সেখানে চোখ একটু খুলছে, আবার বন্ধ করছে। চোখ খুলেই দেখে দরবেশ বাবা চারদিকে ঘিরে আছে। তখন চোখ বন্ধ করে রাখে।

তিনি বলেন, ব্যাংকগুলো সাংঘাতিকভাবে আক্রান্ত। লাখ লাখ-কোটি কোটি টাকা ঋণ নিচ্ছে। কিন্তু ফেরত দিচ্ছে না। ঋণখেলাপি হচ্ছে না। তারা দেদারছে আনন্দ ফুর্তি করে ঘুরে বেড়াচ্ছে। যে কারণে ব্যাংকগুলো বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি। বঙ্গবন্ধু চিকিৎসক পরিষদের ডাক্তাররা এগুলোকে চিকিৎসা দিচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আজ আমরা অপহরণ-গুম-খুনের কথা বলছি। এই কয়েকদিন আগেই একজন ত্বাহা আদনান নামের একজন আলেম নিখোঁজ হয়েছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন- খোঁজ নিচ্ছি। আজ যদি তাকে ফিরিয়ে দিতে না পারেন, এটা রাষ্ট্রের জন্য বড় ব্যর্থতা হবে। আদনানকে অবশ্যই ফিরিয়ে দিতে হবে। তার পরিবারের আহাজারি আপনাকে শুনতে হবে। তিনবারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে লুটপাটের রাজনীতি, ব্যাংক লুটপাটের হোতা কারা? তাদের নেতা জিয়াউর রহমান এটা শুরু করেছিলেন। খুন, গুমের শুরু করেছিলেন তিনি। সেনা সদস্যদের একসঙ্গে ৪ জন করে ফাঁসি দিয়ে হত্যা করেন জিয়াউর রহমান। জিয়ার হ্যাঁ-না ভোট করেছিলেন। খালেদা জিয়া এক কোটি ৩০ লাখ ভুয়া ভোটার করেছিল। শেখ হাসিনার আন্দোলনের ফলেই ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তারা সংগঠন করেন না, টাকা নিয়ে নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন দেন। তাদের কর্মীরা নির্বাচনী এজেন্ট হতে আসেন না। আওযামী লীগ কি তাদের এজেন্ট দিয়ে দেবে?
আওয়ামী লীগের এই সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, বিএনপির সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশিদ নিজেকে স্বঘোষিত বিরোধী দলের নেতা দাবি করেছেন, এটা এক্সপাঞ্জ করা হোক। তিনি (হারুনুর রশিদ) সংবিধানের কথা বলেন অথচ সংবিধান মানেন না। তিনি সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষতার বিরোধিতা করছেন। অথচ মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত সংবিধানের বিরোধীতা করার সুযোগ নেই। বিনিয়োগ কর্মসংস্থানমুখী প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশ আরো উন্নত-সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাবে বলে তিনি দাবি করেন।

বিকল্প ধারার সদস্য আবদুল মান্নান বলেন, বাজেটে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়ের ওপর ১৫ শতাংশ করারোপের প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৫ লাখ শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও সংশ্লিষ্ট মহলে ব্যাপক উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা সৃষ্টি করেছে। কারণ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এই বাড়তি কর শিক্ষার্থীদের থেকে আদায় করবে। এতে উচ্চ শিক্ষা ব্যয় বাড়বে। বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেক অভিভাবকই এই বাড়তি ব্যয় নির্বাহে অক্ষম। তিনি আরো বলেন, করোনার প্রভাবে মধ্যবিত্তের আয় কমেছে বেকার হয়েছে অনেকে। কিন্তু সংসারের খরচ কমেনি। বরং করোনার মধ্যে সন্তানকে অনলাইনে ক্লাস করার জন্য ইলেকট্রনিক গ্যাজেট কিনতে বাড়তি খরচ করতে হয়েছে। হ্যান্ডসানিটাইজার, মাস্কসহ স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী নিত্যপণ্যে পরিণত হয়েছে। সেই তুলনায় মধ্যবিত্তদের সুবিধা নিতে আয়কর সীমা বাড়ানো হয়নি। বিষয়টি পুনর্বিবেচনার অনুরোধ করছি। স্বাস্থ্যখাতের সমালোচনা করে আব্দুল মান্নান বলেন, স্বাস্থ্যখাত মানুষের নূন্যতম চাহিদা পুরণে ব্যর্থ হয়েছে। করোনাকালে এ খাতের অনেক অনিয়ম ও অসঙ্গতি জনগণ প্রত্যক্ষ করেছে। চলতি অর্থ বছরে এডিপির টাকা খরচের সবচেয়ে হতাশার চিত্র দেখা গেছে। এ রকম গুরুত্বপূর্ণ খাতে ব্যয় সক্ষমতার অভাব কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। তিনি আরো বলেন, এডিপি বাস্তবায়নের চিত্র হতাশাব্যঞ্জক। গত ১১ মাসে বাস্তবায়ন হয়েছে মাত্র ৫৮ শতাংশ। বছরের শেষ দুই/তিন মাসে খরচের হিড়িক এখন রেওয়াজে পরিণত হয়েছে।

যুব সমাজের অবক্ষয়ের কথা তুলে ধরেন জাতীয় পার্টির গোলাম কিবরিয়া টিপু। তিনি টিকটক বন্ধে আইনের দাবি করে বলেন, যুব সমাজ এই টিকটক দিয়ে বেহায়াপনা করছে। আমরা ঢাকার বাইরে গেলেও দেখি। কিছু বলতে পারি না। তাতে হিতে বিপরীত হতে পারে। এটা আইন করে ব্যান করা উচিত। জাতীয় বাজেটের যথাযথ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার আহবান জানান তিনি।

অধিবেশন ২৮ জুন পর্যন্ত মুলতবি :
জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন আগামী ২৮ জুন পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত ২ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু হয়। ৩ জুন ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। গত ১৪ জুন থেকে বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনা শুরু হয়। আগামী ২৯ জুন অর্থবিল ও ৩০ জুন মূল বাজেট ও নির্দিষ্টকরণ বিল পাস হবে। ১ জুলাই সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের মধ্য দিয়ে করোনাকালের দ্বিতীয় বাজেট অধিবেশন শেষ হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইসিইউ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ