Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকাসহ সারাদেশে সাংবাদিকদের উপর হামলা-মামলা ও হত্যার হুমকি প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাংবাদিক নেতারা। নেতৃবৃন্দ বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখনই ক্ষমতায় এসেছেন সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করেছেন। কিন্তু কতিপয় সরকারদলীয় নেতারা হায়েনার মত একের পর এক সাংবাদিক নির্যাতন করে চলেছে। সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দিচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ জরুরি।
গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা বিভাগ সাংবাদিক ফোরামের উদ্যোগে ‘সাংবাদিকদের উপর হামলা-মামলা ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে’ সমাবেশ ও মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতারা এ আহ্বান জানান।
সাংবাদিক নেতারা বলেন, গত দুই মাসে দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ২২ জন সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এদের মধ্যে সউদীআরবে হজ্ব কাফেলায় দৈনিক যুগান্তরের সিনিয়র রিপোর্টার ওবায়দুল্লাহ বাদলকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে ছাত্রলীগের এক নেতা। গত ১৪ সেপ্টেম্বর দৈনিক জনতার চীফ রিপোর্টার মশিউর রহমান রুবেলকে কুপিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। পার্লামেন্ট ওয়াচের সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রিপনকে ডুমুরিয়া থানার ওসি প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। ডেমরার বাশেরপুল এলাকায় ঈদের দিন রাতে বিজয় টিভির রিপোর্টার কামরুজ্জামান কামরুলকে ছুরিকাঘাতের মাধ্যমে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে এনটিভির জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ইমরুল আহসানকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে সন্ত্রাসীরা। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে সাংবাদিক সুহাস চক্রবর্তীকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। আমাদের সময়.কমের সাংবাদিক শিমুল রহমানকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। আলোকিত সময়ের ইসমাইল হোসেন টিটু, জয়নাল আবেদীনসহ আরও অনেককে এভাবে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করা হয়েছে। সম্প্রতি গ্রেফতারের পর জামিনে মুক্ত হয়েছেন শিক্ষাডটকমের সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান। এর আগে তার নামেও একটি মামলা করা হয়েছিল।
ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেছেন, দেশজুড়ে সাংবাদিক নির্যাতন চলছে। সরকারি ও বিরোধীদল এবং পুলিশ প্রশাসনের কতিপয় ব্যক্তি সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেছে। এর থেকে উত্তরণের জন্য সাংবাদিক সমাজকে আজ রাজপথে দাঁড়াতে হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, আমরা জানি বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন সাংবাদিক বিপদগ্রস্ত কিংবা অসুস্থ হলে তাৎক্ষণিকভাবে তার পাশে দাঁড়ান। তাই সরকারের ভাবমর্যাদা রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রী যারা সাংবাদিক নির্যাতন-প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করবে তাদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনবেন। তাহলেই কেউ সাংবাদিক নির্যাতন করতে সাহস পাবে না।
সংগঠনের সভাপতি আলম হোসেনের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হাসান কাজলের পরিচালনায় সমাবেশ ও মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মফিজুর রহমান, ডিআরইউর সাবেক দপ্তর সম্পাদক সৈয়দ শুক্কুর আলী শুভ, রংপুর বিভাগ সাংবাদিক ফোরামের নেতা মতলু মল্লিক, খন্দকার শাহীন আফরোজ, রওশন ঝুনু, রেজাউল করিম রেজা, সৈয়দ আতিকুল ইসলাম, নোয়াখালী জার্নালিস্ট ফোরামের ফিরোজ আলম মিলন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ