Inqilab Logo

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

এ সরকারের হাতে দেশের মানুষ নিরাপদ নয় : মাহমুদুর রহমান মান্না

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

ডাকসুর সাবেক ভিপি নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, এ সরকারের হাতে দেশের সাড়ে ১৭ কোটি মানুষ নিরাপদ নয়। আমরা একটা সুন্দর দেশের স্বপ্ন দেখে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম। কিন্তু আমাদের সব আশা আকাংঙ্খাকে হত্যা করে এ সরকার স্বৈরাচারী কায়দায় দেশ চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই করতে হবে।
গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নাগরিক অধিকার আন্দোলন আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতিবাজদের বিচারের দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।
মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এ দেশে একটা লকাডাউন চলছে। সবকিছু খোলা, শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নেই। ১৪ মাস ধরে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও খোলা নেই। শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ ভেবে দেশের সব নাগরিক উদ্বিগ্ন। সবাই জানেন যে ইন্টারনেটের কারণে আমাদের কিশোররা বিপদগামী হচ্ছে। অথচ শিক্ষামন্ত্রী বলেন, তার ওপরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নাকি কোনো চাপ নেই। এরা সেই ধরনের মন্ত্রী, যারা এ দেশে ক্রসফায়ার সমর্থন করেন। মানুষকে গুলি করে হত্যা করাকে সমর্থন করেন।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে একটা মিথ্যা মামলায় দীর্ঘদিন জেলে থাকতে হয়েছে। তাকে ১৭ বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। প্রতিবছর আমাদের দেশ থেকে কোটি কোটি টাকা পাচার হয়। তাদের বিরুদ্ধে সরকার কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি। অর্থমন্ত্রী সংসদে দাঁড়িয়ে বলেন, অর্থপাচার হয় নাকি? কারা করে আমাকে লিস্ট দেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো। অথচ সবাই জানে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছুদিন আগে বলেছেন, বিদেশে কারা কারা বাড়ি বানায়, কারা বেগম পাড়ায় বাড়ি বানায়, কারা সেকেন্ড হোক করে, কারা লাখ কোটি টাকা বিদেশে ব্যাংকে জমা রাখে আমরা তাদের চিনি।
মান্না বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ, দলের পক্ষ থেকে পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করেন, তাকে বিদেশে নিয়ে যান। তার করোনা হয়েছিল, তার কিডনি সমস্যা, হার্টে সমস্যা। অথচ ওরা মামলা করেছে, হাইকোর্ট বলেছেন, উনি কবে জন্মগ্রহণ করেছেন তার সার্টিফিকেট জমা দেন।
ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, সেদিন ডা. জাফজরুল্লাহ চৌধুরী এখানে দাঁড়িয়ে বলেছেন দেশের আট কোটি মানুষের জন্ম তারিখ ঠিক নেই। আমি মাহমুদুর রহমান মান্না বলছি, আমার সার্টিফিকেটে যে জন্ম তারিখ আছে সেটা আমার আসল জন্ম তারিখ কি না তা আমি জানি না। যারা আমাদের বয়সী-তারও কম বয়সী আমরা যখন স্কুলে ভর্তি হতে যাই, হেড মাস্টার সাহেব জিজ্ঞাসা করেন, জন্ম কবে? ওনার যদি তারিখ পছন্দ না হয়, উনি বলেন, ওর জন্ম এ তারিখে হবে। স্কুল যা লেখে সেই জন্ম তারিখ থাকে। তারপরেও এর ওপরে মামলা। হাইকোর্ট পর্যন্ত রায় দেয়।
সংগঠনের মহাসচিব এম জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন হৃদয়ের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, বিলকিস ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন, কৃষক দল নেতা এসএম সরোয়ার জাহান, মুসা ফরাজী প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ