Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে আমতলী সাবরেজিস্ট্রার অফিসের কার্যক্রম

মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ উপেক্ষা

প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আমতলী (বরগুনা) উপজেলা সংবাদদাতা
আইন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ উপেক্ষা করে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে আমতলী সাবরেজিস্টার অফিসের কার্যক্রম চলছে। আমতলী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডে বালু দিয়ে একটি গভীর খাদ ভরাট করে তার উপর পৌর প্লান ব্যতিরেকে তরিকুল ইসলাম জুয়েল নামক জনৈক ব্যক্তি একটি দ্বিতল ভবন নির্মাণ করে। ওই ভবনের নিচতলা ভাড়া নিয়ে আমতলী সাবরেজিস্টার অফিসের কার্যক্রম চলছিল। অফিসের কাজ চলাকালীন সময় পৌর সভা ভবনটির তৃতীয় তলার কাজ সম্পন্ন হয়। অতঃপর বে-আইনীভাবে চতুর্থ তলার কাজ শুরু করে। এ সময় পৌর কর্তৃপক্ষ গত ২৩ আগষ্ট বাড়ির মালিক তরিকুল ইসলাম জুয়েলকে পৌর প্লান ব্যতিরেকে ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে ভেঙ্গে ফেলার নির্দেশ দেন। এর পরপরই ১৯ সেপ্টেম্বর জনৈক রাকিবুল ইসলাম সুজন তরিকুল ইসলাম জুয়েলকে ভবনটির লোড/ওজন কমিয়ে জানমালের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য লিগ্যাল নোটিশ প্রেরণ করে তার কপি আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর প্রেরণ করেন। অপরদিকে আইন মন্ত্রণালয় ২৭ জুন ঝুঁকিপূর্ণ এই ভবন থেকে অতিসত্বর অন্যত্র স্থানান্তরের নির্দেশ দেন। আমতলী ৪ নং ওয়ার্ডেও এজেডএম ছালের বাসার নিচ তলায় ১৯ হাজার ৫ টাকায় মাসিক ভাড়া নির্ধারণ করে সেখানে স্থানান্তরের জন্য আইন মন্ত্রণালয় ও জেলা রেজিস্ট্রারের অনুমোদন থাকা সত্ত্বেও ২ মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও অজ্ঞাত কারনে আমতলী সাবরেজিস্ট্রার অফিস স্থানান্তর না করে ঝুঁকির মধ্যে অফিসের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।