Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৩৮ লাখ ৭৪ হাজার ছাড়িয়েছে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০২১, ৯:৫৬ এএম

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে শনাক্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কমেছে। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৮৯ লাখ ৪১ হাজার ৫৩৯ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৮ লাখ ৭৪ হাজার ৯৮৯ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৭ কোটি ৩৪ লাখ ৬৯ হাজার ৬৯৪ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে রোববার (২০ জুন) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪৪ লাখ ১ হাজার ৭১২ জন আর ৬ লাখ ১৭ হাজার ৮৩ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৯৮ লাখ ৮১ হাজার ৩৫২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৭৪০ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৭৮ লাখ ৮৩ হাজার ৭৫০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৮৬৮ জনের।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৭ লাখ ৫৫ হাজার ৪৯৬ জন, রাশিয়ায় ৫২ লাখ ৯৯ হাজার ২১৫ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৬ লাখ ২০ হাজার ৯৬৮ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৫২ হাজার ৯৫ জন, তুরস্কে ৫৩ লাখ ৬৫ হাজার ২০৮ জন, স্পেনে ৩৭ লাখ ৫৭ হাজার ৪৪২ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ২৯ হাজার ৫৫৭ জন এবং মেক্সিকোতে ২৪ লাখ ৭১ হাজার ৭৪১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১০ হাজার ৭২৪ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৯৭০ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৭ হাজার ২৫৩ জন, তুরস্কে ৪৯ হাজার ১২২ জন, স্পেনে ৮০ হাজার ৬৫২ জন, জার্মানিতে ৯০ হাজার ৯৫৩ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ৩০ হাজার ৯৫৯ জন মারা গেছেন।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২০ জুন, ২০২১, ১১:০৬ এএম says : 0
    করোনা মহামারী আক্রান্ত মৃত্যুর শুরু থেকে বাংলাদেশের এখনই কঠিন সময় পার হচ্ছে। বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞরা কি পরামর্শ সরকারকে দিচ্ছেন জানিনা।ভয়ংকর পাশ্ববর্তী ভারতীয় ডেল্টা ভ‍্যারিযেন্ট বাংলাদেশে আঘাত হেনেছে সিমান্ত বক্তি শহর আক্রান্ত হচ্ছে কযেকটি বিভাগীর শহর লকডাউনে মধ্যে। এখনই উপযুক্ত ছিল সমগ্র বাংলাদেশে কঠিন লকডাউন। ভাইরাসের তীব্রতর সময় এটি বুঝতে বিশেষজ্ঞ হওয়া প্রয়োজন? শিক্ষা প্রতিষ্টান বন্ধ সরকার রেখে হাজার হাজারো ছাত্র শিক্ষকের জীবন বাচাইনী। এই অদৃশ্য শক্র ভাইরাসের বিরুদ্ধে একমাত্র যুদ্ধ সুন্নাহ মতে যে যেখানেই আছ সেখানেই থাকুন। বিশ্বে একমাত্র ঔষধ লকডাউন।জীবিকারজন্যে মানুষ দিশেহারামধ‍্যবক্তিরা মহাবিপর্জযে। নিম্মমধ‍্যবিক্তরা সংকটে গরিররা মুছিবতে।এটি প্রাকৃতির বালা মুছিবত গজব আজাব মানবজাতি কে ক্ষুদ্র শিক্ষার নাম মহামারী বিশ্ব পরাশক্তি আমেরিকা ইংল‍্যান্ড জার্মানী ইতালি ভয়ানক মৃত্যুর পাহাড়েও মাঝে কোথাও শিক্ষা হচ্ছে???তাদের চরিত্রে পরিবর্তন হয়নি। পাশ্ববর্তী ভারতের মৃত্যুর মিছিল লাশ রাখার স্থান নেই শ্বস্বানে মৃত্যুর দীর্ঘলাইন ভয়ংকর পরিস্থিতি এইপরিস্থিতির জন্যে সমগ্র পৃথিবী মারাত্মক খতিগ্রস্থ হয়েছে সত্যি।হয়তো মানব জাতিকে আল্লাহর ছোট্ট শিক্ষা হতে পারেন। এই কঠিন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে মানুষের মাঝে ঐক্য ঐক্যবদ্ধ ভাবেই সকলের সম্মিলিত ভাবে রাষ্ট্রকে সহযোগিতা করা। রাষ্ট্রের উচিৎ জাতীয় ঐক্যের আহবান করা।ইতিমধ্যে রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ অনেক নেতা আক্রান্ত মৃত্যু হয়েছে। বাকীরা কি শিক্ষা নিয়েছেন। শীর্ষ ব‍্যবসায়ীদের অনেকেই মৃত্যু হয়েছে ব‍্যবসায়ীদের শিক্ষা হয়েছে। আইন শৃংখলা বাহিনী ডাক্তার মানুষের জীবন বাচাতে মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর মিছিল এখন ও আছে। আমাদের মাঝে শান্তি সহযোগিতার বড়ই অভাব। টিকা নিয়েও মানুষ নিরাপদে শাস্তি নাই। দ্বিতীয় ডোস নিয়ে আক্রান্ত মৃত্যুর শিরোনাম হচ্ছে। কঠিন সময় এখন সবাই জ্ঞানী বুদ্ধিজীবী মতই আলোচনা সমালোচনা গবেষণা পর গবেষণায় করে যাচ্ছে সত্যিকার মতামত মধ্যে পন্থায় না। রাষ্ট্রের বিশালাকার দায়িত্ব দেশ জাতির প্রতি মানুষের জীবন বাচানো। জীবন বাচাতেই যাহাকিছু করা প্রয়োজন সরকার কে করতে হবে। বিশ্বের স্বাভাবিক পরিস্থিতি বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থারনির্দশনা বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। দেশ জাতির স্বার্থকে অগ্রাধিকার দিতে হবে।কঠিন সময় কঠিন ভাইরাসের আক্রান্তের সময় এখখই কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি কঠিন লকডাউন জরুরীআশেপাশের পরিস্থিতি ভয়ংকর পকৃত অসুস্থ পকৃত আক্রান্তের চিত্র খবরাখবর সরকারের কাছে নেই। মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে চিকিৎসা নিচ্ছেন নিজ থেকে চিকিৎসা পরিক্ষা হচ্ছে না এটি মারাত্মক ভয়াবহ সংবাদ মহামারীর জন্যে। আল্লাহ্ সবাই হেফাজত করুক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ