Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৩ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

টেকনাফে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন

প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

টেকনাফ উপজেলা সংবাদদাতা : টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লানপাড়ায় রশিদা বেগম (৩০) নামে ৪ সন্তানের জননীকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে স্বামী। এ ঘটনায় স্বামী মোঃ হোসন প্রকাশ হোসন মিস্ত্রি পলাতক রয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে পৌরসভার পুরাতন পল্লান পাড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় এ হত্যাকাÐের এ ঘটনা ঘটে।
নিহতের ভাই আব্দুর রহমান জানান, তার বোন পার্শ্ববর্তী আব্দুস শুক্কুরের ভাড়া বাসায় পূর্বের স্বামীর ৪ সন্তানসহ দ্বিতীয় স্বামীর সাথে বসবাস করতো।
বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে ভাড়া বাসার মালিক, তার বোন রশিদার মূমুর্ষু খবর জানালে সেখানে গিয়ে দেখেন পিঠে ছুরিকাঘাত হওয়া রশিদা ছটফট করতে থাকে। এসময় তাকে দ্রæত টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক কক্সবাজার প্রেরণ করেন।
কক্সবাজার নেওয়ার পথে সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্বামীর ছুরিকাঘাতে তার বোনের মৃত্যু হয়েছে দাবি তার, তবে কি কারণে এ হত্যাকাÐ ঘটিয়েছে তা তাদের বোধগম্য হচ্ছে না।
ময়নাতদন্তের পর বিকালে নিহতের লাশ টেকনাফে নিয়ে আসা হয়। এ ঘটনায় স্বামী মোঃ হোসন পলাতক রয়েছে।
নিহতের শিশু পুত্র রিদুয়ান জানায়, রাতে তাদের সৎ পিতা বাহির থেকে এসে সবাইকে কোল্ডস ড্রিংক খেতে দেয়। এর পর সে আর কিছু বলতে পারেনা, ভোর রাতের দিকে মাকে ছুরিকাঘাত অবস্থায় ফ্লোরে কাতরাতে দেখে পার্শ্ববর্তী রিকসা গ্যারেজে থাকা বড় ভাইকে ডেকে আনে।
এদিকে নিহতের সন্তান ও আত্মীয় স্বজনদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ৩ বছর আগে উখিয়া উপজেলার কোটবাজার তুতুরবিল এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে রাজমিস্ত্রি মোঃ হোসনের সাথে বিয়ে হয় রশিদার। বিয়ের মাস ছয়েক পর একটি মানব পাচার মামলায় সে কারাগারে যায়। প্রায় আড়াই বছর হাজত বাসের পর মাস ছয়েক পূর্বে সে ছাড়া পেয়ে পুনরায় স্ত্রীর সাথে ঘর সংসার করতে থাকে। এর কিছুদিন পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হলে আত্মীয় স্বজনের মধ্যস্থতায় তা সমাধান হয়।
টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ জানান, এব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ