Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

শোক হোক শক্তি

প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অনেকটা নীরবেই শেষ হয়ে গেল এবারের প্যারালিম্পিকের আসর। ১৫তম এই আসরটি কবে যে শুরু হয়েছিল সেটাও হয়তো অনেকের কাছে অজানা। গেল ২১ অক্টোবর ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোর যে ঐতিহ্যবাহী মারাকানা ফুটবল স্টেডিয়ামে নিভেছিল বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ ক্রীড়াযজ্ঞ অলিম্পিকের মশাল, ১৬ দিন পর ‘একটি নতুন পৃথিবী’র সেই একই সেøাগান নিয়ে মারাকানার মশাল আবার আলোকোজ্জ্বল হয়ে উঠেছিল আরেকটি বৈশ্বিক ক্রীড়াযজ্ঞে। একই মাঠে এবার শারীরিক প্রতিবন্ধী ক্রীড়াবিদেরা নিজেদের ক্রীড়াশৈলির মাধ্যমে জানান দেন সাধারণের চেয়ে কোন কাজেই পিছিয়ে নেই তারা। ব্রাজিলিয়ান ঐতিহ্যবাহী নাচ, গান আর বিভিন্ন প্রদর্শনীতে ৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া প্রতিযোগিতার একই কায়দায় পর্দা নেমেছে গত ১৮ তারিখে বিদায় মঞ্চে জনাথন বাস্তসের বিষ্ময়কর গিটারের সুরে। দুই হাতের একটিও নেই জনাথনের, গিটারে বাজনা তুললেন দু’পায়ের সাহায্যে! আসরের সকল প্রতিবদ্ধি ক্রীড়াবিদদের প্রতিনিধি হিসেবে জনাথন যেন এই জানানই দিলেনÑ আমরাও পারি, নিশ্চয়।

আসরের পর্দা নামার আগের দিন একটা অনাকাঙ্খিত ঘটনা নাড়া দেয় পুরো ক্রীড়াঙ্গনকে। ৪৮ বছর বয়সী ইরানিয়ান প্যারা-সাইক্লিস্ট বাহামান গলবার্নেজাদ পুরুষ সি ৪-৫ রোড রেস চলাকালীন দুর্ঘটনায় পড়েন। পরে হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে প্রাণ হারান তিনি। আসর শেষ হওয়ার ঠিক আগের দিন এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনায় শোকাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে পুরো প্যালিম্পিক ভিলেজ। প্যারালিম্পিকের ইতিহাসে যে ঘটনা এবারই প্রথম। তার সম্মানার্থে আসরের সমাপনি অনুষ্ঠানে প্যারালিম্পিক ভিলেজে ইরানের পতাকা অর্ধ-নমিত রাখে। এবারের আসরে অংশ নেয় মোট ৪ হাজার ৩শ’ ৪২ জন অ্যাথলেট। ২২টি খেলায় মোট ৫২৮টি ইভেন্ট চলে টানা ১৫ দিনের এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় মোট ১৫৯টি দেশ। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ডোপিংয়ের অভিযোগে এই আসরে ছিল না রাশিয়ার অ্যাথলেটরা। বিশ্বজুড়ে যুদ্ধের দামামায় উদ্বাস্তু হয়ে যাওয়া খেলোয়াড়দের প্যারালিম্পিকেরই পতাকাতলে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেয় আন্তর্জাতিক প্যারালিম্পিক কমিটি (আইপিসি)। ‘স্বাধীন প্যারলিম্পিক অ্যাথলেট দল’ নামে বিশ্বের যে কোন দেশের রিফিউজি অ্যাথলেট অংশ নেওয়ার সুযোগ পায় এই দলে। গত অলিম্পিকেও একইরকম দল রাখা হয়েছিল। গত ২৬ আগস্ট রিফিউজি দলের দুই সদস্যের নাম ঘোষণা করে আইপিসি : সিরিয়ান সাঁতারু ইব্রাহিম আল হুসেইন (৫০ ও ১০০মিটার ফ্রিস্টাইল এস১০) ও ইরানের শাহরাদ নাসাজপৌর (এফ৩৭ চাকতি নিক্ষেপ)।
পদক তালিকায় এযাবৎকালের সর্বোচ্চ পদক অর্জনকারী দেশ যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে এবারের আসওে সর্বোচ্চ পদক অর্জন করেছে চীন। চীনের ধারেকাছেও নেই নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বিরা। এমনকি দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা দলের মোট স্বর্ণেও চেয়েও বেশি সংখ্যক স্বর্ণ জিতেছে চীন! ১০৭টি স্বর্ণ, ৮১টি রৌপ্যসহ মোট ২৩৯টি পদক জিতেছে চীনের প্যারাঅ্যাথলেটরা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা যুক্তরাজ্যের দখলে ৬৪টি স্বর্ণ, ৩৯টি রৌপ্যসহ মোট ১৪৭টি পদক। গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে আধিপত্য দেখানো যুক্তরাষ্ট্র ৪০টি স্বর্ণ নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে। তাদের চেয়ে একটি স্বর্ণ বেশি নিয়ে তৃতীয় স্থানে ইউক্রেন।

রিও প্যরালিম্পিকের পদক তালিকা

দেশ স্বর্ণ রৌপ্য ব্রোঞ্জ মোট
চীন ১০৭ ৮১ ৫১ ২৩৯
যুক্তরাজ্য ৬৪ ৩৯ ৪৪ ১৪৭
ইউক্রেন ৪১ ৩৭ ৩৯ ১১৭
যুক্তরাষ্ট্র ৪০ ৪৪ ৩১ ১১৫
অস্ট্রেলিয়া ২২ ৩০ ২৯ ৮১
জার্মানি ১৮ ২৫ ১৪ ৫৭
নেদারল্যান্ডস ১৭ ১৯ ২৬ ৬২
ব্রাজিল ১৪ ২৯ ২৯ ৭২
ইতালি ১০ ১৪ ১৫ ৩৯
পোল্যান্ড ৯ ১৮ ১২ ৩৯
পদক তালিকার শীর্ষ ১০ দেশ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।