Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আক্রান্ত হলে ভারতে হামলার লক্ষ্যবস্তু চূড়ান্ত পাকিস্তানের!

প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:৩৬ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

দিল্লীর অনুরোধ উপেক্ষা করে পাকিস্তানে যৌথ মহড়ায় রুশ বাহিনী : ফ্রান্স থেকে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কিনছে ভারত
ইনকিলাব ডেস্ক : কাশ্মীর ঘিরে পাক-ভারত উত্তেজনা প্রশমিত হচ্ছে না। বরং দুই দেশই নিজেদের মতো করে আক্রমণাত্মক আচরণের নীতি অবলম্বন করছে। গতকাল টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে দাবি করেছে, আক্রান্ত হলে ভারতের কোথায় কোথায় হামলা করবে তার লক্ষ্যবস্তু ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করে রেখেছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। অন্যদিকে এই পরিস্থিতির মধ্যেই ভারত ফ্রান্স থেকে ৩৬টি রাফাল মডেলের যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তিতে সই করেছে গতকাল। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকার এ সংক্রান্ত চুক্তি পত্রে সই করেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। যদিও কূটনৈতিক ক্ষেত্রে ইসলামাবাদের কাছে আপাতত একটি ধাক্কা খেয়েছে দিল্লী। পাকিস্তান ও রাশিয়ার ইতিহাসে এই প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া হওয়ার পরিকল্পনা হয় এ বছর। সেই মহড়া যাতে রাশিয়া বাতিল করে দেয়- উরি হামলার পর এমন আবেদন মস্কোর কাছে জানিয়েছিল দিল্লী। কিন্তু সেই আবেদনকে প্রত্যাখ্যান করে গতকাল পাকিস্তানে মহড়ার উদ্দেশ্যে পৌঁছেছে রুশ বাহিনী। অবশ্য রুশ সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এতে ভারতের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।
মহাসড়কে যুদ্ধবিমান নামিয়ে পাকিস্তানের ‘মহড়া’
সীমান্তে উত্তেজনার প্রেক্ষিতে মহাসড়কে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে সেখানে যুদ্ধবিমানের ওঠানামা করিয়েছে পাকিস্তান। তবে এটাকে তারা ‘নিয়মিত প্রশিক্ষণের’ অংশ বলে দাবি করছে। রাজধানী ইসলামাবাদ সংলগ্ন সড়কটিতে যুদ্ধবিমানের এই আকস্মিক ‘মহড়া’য় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে পূর্বাঞ্চলীয় শহর লাহোর পর্যন্ত প্রধান মহাসড়কের একটি অংশে এ মহড়া চালানো হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে গতকাল শুক্রবার এ খবর দিয়েছে। সংবাদমাধ্যম জানায়, ওই মহাসড়কটির একটি বড় অংশে গাড়ি চলাচল অন্যদিকে সরিয়ে দিয়ে যুদ্ধবিমান ওঠানামার জন্য খালি করা হয়। এরপর রাতেই সেখানে বিমানবাহিনী যুদ্ধবিমান এফ-১৬ ও এফ-১৭ এর ওঠানামা করে। এ নিয়ে তৎক্ষণাৎ টুইট করেন পাকিস্তানের খ্যাতিমান সাংবাদিক হামিদ মির। তিনি তার টুইটে বলেন, রাত ১০:২০ টা। ইসলামাবাদের আকাশে উড়েছে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয় পাকিস্তানের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পাড়ায়। রাস্তায় নেমে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দারা। লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। বেশ কিছু পর বন্ধ হয় মহড়া।
এ বিষয়ে পাকিস্তান বিমান বাহিনীর মুখপাত্র কমোডোর জাবেদ মোহাম্মদ আলী বলেন, তারা (যুদ্ধবিমান) রাস্তায় ওঠানামা করেছে। এটা বেশ ক’বছর ধরে হয়ে আসছে। আসলে মহাসড়কটি ব্যবহার উপযোগী রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্যই এই নিয়মিত প্রশিক্ষণ হয়েছে। তিনি দাবি করেন, ভারতের সঙ্গে উত্তেজনার প্রেক্ষিতে এই যুদ্ধবিমানের প্রশিক্ষণ হচ্ছে না। সময় মিলে যাওয়াটা আসলে কাকতালীয় (কোনইনসিডেন্স)। এদিকে কমোডোর জাবেদ মোহাম্মদ আলী এ দাবি করলে পাকিস্তানের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাশ্মীরের উরির সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার জবাবে ভারত পাল্টা জবাব দিতে পারে, এমন আশঙ্কায় সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থানে রাখা হয়েছে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে।
দিল্লীর অনুরোধ উপেক্ষা করে পাকিস্তানে যৌথ মহড়ায় রুশ বাহিনী
গতকাল পাকিস্তানে মহড়ার উদ্দেশ্যে এসে পৌঁছেছে রুশ সেনাবাহিনীর একটি টিম। দিল্লীর পক্ষ থেকে সম্প্রতি এই মহড়া বাতিলের জন্য মস্কোর কাছে অনুরোধ জানানো হয়। কিন্তু সে অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করল মস্কো। এদিকে পাকিস্তানের আইএসপিআর এক বিবৃতিতে জানায়, এটি পাকিস্তান ও রাশিয়ার প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া। এ মহড়া চলবে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত।
ফ্রান্স থেকে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কিনছে ভারত
ফ্রান্স থেকে ৩৬টি রাফাল মডেলের যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তিতে সই করেছে ভারত সরকার। গতকাল ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকার এ সংক্রান্ত চুক্তি পত্রে সই করেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। এ সময় ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জ্যঁ ইভ লে দ্রিয়াঁ উপস্থিত ছিলেন।
জানা যায়, চুক্তি অনুযায়ী ৩৬টি যুদ্ধবিমান কিনতে ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫৮০০০ কোটি রুপি ব্যয় করবে সরকার। দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট এই যুদ্ধ বিমানগুলো ১০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত শত্রু বিমানে ক্রুস মিসাইলের মাধ্যমে আঘাত হানতে সক্ষম। যুদ্ধবিমানের প্রথম চালানটি ভারতে আসতে ১৮ মাস সময় লাগবে বলেও জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম। সূত্র: বিবিসি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, ডন।



 

Show all comments
  • Ashiqur Rahman Shuvo ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:০২ পিএম says : 3
    যুদ্ধ চাইনা, শান্তি চাই।
    Total Reply(0) Reply
  • বোরহান ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:২০ পিএম says : 1
    যুদ্ধ কোন সমাধান হতে পারে না।
    Total Reply(0) Reply
  • Bashir Ahmed ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:০০ পিএম says : 2
    হামলা করছি, হামলা করছি বলে ভারত এ কয়টি দিন অতিবাহিত করল কিন্তু হামলা তো করল না।মনে রাখতে হবে, শিকারি পাখী গান গায় না।
    Total Reply(0) Reply
  • Bulbul ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১১:২৪ এএম says : 0
    Plz Stop this
    Total Reply(0) Reply
  • SH Sumon ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:০১ পিএম says : 0
    মানুষ যুদ্ধ চায়না। তাই ২ দেশেরই উচিত থেমে যাওয়া। কারণ যুদ্ধ থেকে অনেক দেশ মজা নিতে চাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • ফয়সাল ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:২১ পিএম says : 1
    মনে হয় কিছুই হবে না হওয়ার হলে এতো দিনে হয়ে যেতো।
    Total Reply(0) Reply
  • রিপন ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১:২১ পিএম says : 3
    যুদ্ধ হলে ভারতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে মনে হচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • bari ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ৩:১৩ পিএম says : 0
    বর্তমানে যুদ্ধাঅস্ত্র কত ভয়ংকর তা সিরিয়াতে বিশ্ববাসী হতবম্ভ। আর পারমানু যুদ্ধ যদি সেটা বেধেই যায় তাহলে মনব সভ্যতা বিলিন হয়ে যাওয়া ছাড়া অন্য বিকল্প নাই। তাই ভারতকে একটু ধৈর্যের পরিচয় দিতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • shagor vi ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ৩:৪২ পিএম says : 0
    varot pakistane hamla korar sahos pabena
    Total Reply(0) Reply
  • adnan joy ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১১:০৭ পিএম says : 0
    no body do not want joddho........
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আক্রান্ত হলে ভারতে হামলার লক্ষ্যবস্তু চূড়ান্ত পাকিস্তানের!
আরও পড়ুন