Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

চার শিক্ষক দিয়ে চলছে ৩শ’ শিক্ষার্থীর পাঠদান

প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মাগুরা জেলা সংবাদদাতা

মাগুরার শালিখা উপজেলার চান্দড়া সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষক সংকট থাকায় মাত্র ৪ জন শিক্ষক দিয়ে দায়সারাভাবে চলছে ৩শ’ ছেলেমেয়ের ক্লাস। শিক্ষক সংকট থাকার ফলে ঐ বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদানে ব্যাপকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এতে করে শিক্ষার্থীরা ঝরে পড়ার আশঙ্কা করছেন অভিভাবক মহল। গত বুধবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্কুলেটিতে মোট ৮ জন শিক্ষক থাকার কথা থাকলেও প্রধান শিক্ষকসহ ৪ জন শিক্ষক দিয়ে কোনোরকম শিক্ষার্থীদের দায়সারামত ক্লাস চলছে। এব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বিল্লাল হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, সরকারিভাবে স্কুলটিতে ৮ জন শিক্ষক থাকার কথা থাকলেও তা নেই। বর্তমানে ৫ জন শিক্ষক রয়েছেন। এর মধ্যে সহকারী শিক্ষক নাসরিন আক্তার মাতৃকালীন ছুটিতে রয়েছেন। বাকি শিক্ষক সংকট থাকায় বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা অফিসে লিখিত অভিযোগও করেছি। কিন্তু কোনো ফল পাচ্ছি না। এলাকাবাসী জানিয়েছেন, বিদ্যালয়টিতে গত ৬ মাস যাবত ৪ জন শিক্ষক সংকট রয়েছে। যে কারণে আমাদের সন্তানদের লেখাপড়া করা দষ্কর হয়ে পড়েছে। এব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার অরুন কুমার ঢালির সাথে কথা বললে তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষকের সুপারিশে দুইজন শিক্ষক বদলি হয়ে গেছেন। আর একজন শিক্ষক মাতৃত্বকালীন ছুটিতে আছেন এবং একজন শিক্ষক পিআরএল রয়েছেন। এখন ৫ জন শিক্ষক বিদ্যালয়টিতে কর্মরত আছেন। তবে শিক্ষর্থী সংখ্যা অধিক হওয়ায় শিক্ষক দেয়া প্রয়োজন, পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটির পরে বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ