Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বিনা প্রয়োজনে বের হলেই গ্রেফতার

সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২১, ১১:৪৪ পিএম

আজ থেকে জারি করা কঠোর ‘লকডাউনে’ অকারণে রাস্তায় বের হলেই গ্রেফতার করে মামলা দেয়া হবে। প্রয়োজনে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়ে ব্যবস্থা নেব। অযথা বের হলেই আইনি ঝামেলায় পড়তে হবে। যানবাহন ব্যবহার করলে মোটরযান আইনে ব্যবস্থা নিব।

গতকাল বুধবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, কেউ অকারণে বের হলে দণ্ডবিধির ২৬৯ ধারায় গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হবে। এমনটি আমরা এর আগে কখনো করিনি। আমরা অত্যন্ত শক্ত অবস্থায় থাকবো। এমনও হতে পারে ডিএমপি প্রথম দিন ৫ হাজার লোক গ্রেফতার করবে, এমনটাও শুনতে পারেন।

পুলিশ কমিশনার বলেন, কোনো ধরনের যানবাহন চলতে দেয়া হবে না। তবে সঙ্গত কারণ থাকলে বা নিত্যপণ্যের জন্য বাজারে যেতে হলে তাদেরকে রিকশা ব্যবহারের অনুরোধ করবো। অন্যান্য সব জরুরি কাজে রিকশা ব্যবহার করা যাবে। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে রিকশায় ঘুরতে কিংবা পার্কে যাওয়ার চেষ্টা কেউই করবেন না। কাঁচাবাজার ভেতর থেকে সামনের রাস্তার পাশে নিয়ে আসা হবে, যাতে মানুষ দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করতে পারেন। হোটেল শুধুমাত্র খাবার কেনার জন্য খোলা থাকবে, কেউ বসে খেতে পারবেন না।

তিনি বলে, লকডাউন চলাকালে আদালতে না পাঠিয়ে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক শাস্তির ব্যবস্থাও করা হবে। এই ধারায় সর্বোচ্চ ৬ মাসের জেল, অর্থদণ্ড ও উভয়দণ্ড হতে পারে। যারা বাইরে বের হবেন তাদেরকে মাস্ক এবং আইডি কার্ড নিয়ে বের হতে হবে। আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে যারা আসবেন তাদের বহনের জন্য গাড়ি ব্যবহার করা যাবে। তবে আগত যাত্রীদের পরিবারকে অনুরোধ করবো আপনারা গাড়ি নিয়ে বিমানবন্দরে না গেলেও চলবে। কারণ বিমানবন্দরে যাত্রীদের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক গাড়ি রয়েছে। আন্তর্জাতিক যাত্রীদের রাস্তায় টিকিট এবং পাসপোর্ট প্রদর্শন করতে হবে।

পুলিশ আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে যতটা কঠোর হবে, আপনার পরিবার-সন্তান ততটাই নিরাপদে থাকবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আপনারা আমাদের সহযোগিতা করবেন। পুলিশের সঙ্গে তর্কে-বিতর্কে জড়িয়ে ফাঁকি দিতে পারবেন। ভিডিও নিয়ে ভাইরাল করে পুলিশকে সমালোচনার মুখে ফেলতে পারবেন। তবে সন্তান ও পরিবারকে করোনার সংক্রমণ থেকে দূরে রাখতে পারবেন না। কুরিয়ার সার্ভিসগুলো যেহেতু কাভার্ডভ্যান ব্যবহার করে-সে ক্ষেত্রে তারা চলাচল করতে পারবে। ঢাকার কোনো ক্লাব খোলা থাকবে না, অলি-গলির সকল দোকান বন্ধ রাখা হবে।

তিনি বলেন, ডায়াবেটিসের রোগীরা এমনিতেই অনেক ঝুঁঁকিতে। অনুরোধ করব, বাসার আশপাশে জায়গা থাকলে সেখানে হাঁটবেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শুধুমাত্র পরিচয়পত্র ব্যবহার করে সংবাদকর্মীরা চলাচল করতে পারবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডিএমপি কমিশনার


আরও
আরও পড়ুন