Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

মেধাস্বত্ব রহিতের সুবিধা বাড়ল ১৩ বছর

বাংলাদেশসহ স্বল্পোন্নত দেশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২১, ১২:০৪ এএম

স্বল্পোন্নত দেশসম‚হের (এলডিসি) জন্য বাণিজ্য সংশ্লিষ্ট মেধাস্বত্ব (ট্রিপস) বাতিলের সুবিধা আরও তের বছরের জন্য বাড়ানো হয়েছে। ফলে এ বিশেষ সুবিধা আগামী ২০৩৪ সালের ১ জুলাই পর্যন্ত পাওয়া যাবে। দীর্ঘ নয় মাস বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্য দেশগুলোর মধ্যে দেন-দরবারের পর স্বল্পোন্নত দেশের এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব বুধবার জেনেভায় ট্রিপস কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। স্বল্পোন্নত দেশগুলোর পক্ষে বাংলাদেশ এই ‘আপস-আলোচনায়’ নেতৃত্ব দেয়। এ যাবৎকালে এটিই সর্বোচ্চ সময়ের জন্য বৃদ্ধি। এর আগে যথাক্রমে সাত ও আট বছরের জন্য এ সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়।

এ বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় জেনেভাস্থ জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও স্থায়ী প্রতিনিধি মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আপস-আলোচনাটি মোটেও মসৃণ ছিল না। উন্নত দেশগুলো, বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন স্বল্প সময়ের বেশি ছাড় দিতে কোনভাবেই রাজি হচ্ছিল না। অবশেষে বাংলাদেশের নেতৃত্বে আগের তুলনায় পাঁচ বছরের বেশি সময় পাওয়া গেছে। সেই হিসেবে এ বিশেষ সুবিধা আগামী ২০৩৪ সালের ১ জুলাই পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। এ অর্জনে আমি ও আমার সহকর্মীরা আনন্দিত।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ দ্রæত স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে। তারপরও আমাদের ইচ্ছা ছিল এসব দেশের জন্য একটা লম্বা সময়ের ছাড় আদায় করে দিয়ে যাওয়া, যাতে করে স্বল্পোন্নত দেশগুলোকে বেশি বেশি এ সংক্রান্ত আলোচনায় বসতে না হয়।’

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ বরাবরই স্বল্পোন্নত দেশসমূহের পক্ষে বিভিন্ন দর-কষাকষিতে নেতৃস্থানীয় ভ‚মিকা পালন করে আসছে। এ মুহ‚র্তে স্বল্পোন্নত দেশ হতে উত্তরণ সংক্রান্ত আরেকটি প্রস্তাব বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সাধারণ পরিষদের বিবেচনাধীন রয়েছে। এ আলোচনাতেও বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশগুলোর পক্ষে নেতৃত্ব দিচ্ছে।
বর্তমানে আফ্রিকার দেশ শাদ সংস্থাটিতে স্বল্পোন্নত দেশগুলোর সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছে। তবে, বাণিজ্য ও মেধাস্বত্ব সম্পর্কিত বিষয়গুলোর আলোচনায় এসব দেশের পক্ষে বাংলাদেশ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় নেতৃত্ব দিচ্ছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন