Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

অন্যের হয়ে জেল খাটা মিনুর ট্রাকচাপায় মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২১, ১২:০২ এএম

খুনের মামলায় আসামি না হয়েও প্রায় তিন বছর কারাভোগ করে মুক্তি পান মিনু আক্তার (৩০)। কিন্তু কারামুক্তি ১৩ দিনের মাথায় সড়ক দুর্ঘটনায় চিরতরে দুনিয়া থেকে বিদায় নেন তিনি। গত ১৬ জুন চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্ত বাতাসে আসেন মিনু। ২৮ জুন রাতে নগরীর বায়েজিদ-ফৌজদার হাট সংযোগ সড়কের আরেফিন নগর এলাকায় বেপরোয় একটিাক মিনুকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ট্রাকচাপায় গুরুতর আহত হন তিনি।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। সেখানে ২৯ জুন মারা যান তিনি। কোনো পরিচয় না পাওয়ায় এক দিন পরে অজ্ঞাত হিসেবে তার লাশ দাফন করে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম। শনিবার রাতে পুলিশ ও পরিবার নিশ্চিত হয় অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করা লাশটি মিনুর।
বায়েজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান, তার পরিচয় শনাক্তের জন্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজখবর করা হয়। পরে তার ছবি দেখে একজন শনাক্ত করেন তিনি মিনু। তার ভাইকে খুঁজে বের করে ছবি দেখানো হলে তিনিও মিনুকে শনাক্ত করেন।

ওসি বলেন, এই ঘটনায় পুলিশ অজ্ঞাত পরিচয়ের ট্রাক চালকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ট্রাক চালককে শনাক্ত করে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। এই ঘটনার পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মিনুর বড় ভাই মো. রুবেলের সন্দেহ তার বোনকে ট্রাকচাপা দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তিনি তা তদন্তের দাবি জানান। যারা তাকে জেলে পাঠিয়েছিলেন, তারা এই ঘটনায় জড়িত কি না, তার তদন্ত হওয়া উচিত।

মো. রুবেল জানান, মিনু মানসিক প্রতিবন্ধী ছিলেন। তিন সন্তানসহ তাকে অনেক আগেই ফেলে চলে যান স্বামী। মিনু কখনো ভিক্ষা করতেন, আবার কখনো মানুষের বাসায় কাজ করতেন। মিনু কারাগারে থাকাকালে গত মে মাসে তার ছোট্ট মেয়ে জান্নাতুল মারা যায়। জান্নাতের জন্মের পরপরই মিনু কারাগারে যান। স্থানীয় শাহাদাত হোসেন নামের এক ব্যক্তি জান্নাতকে লালন-পালন করছিলেন। মিনুর আরেক সন্তান মো. গোলাপ (৭) সীতাকুণ্ডের জাফরাবাদ ইমাম হোসাইন হাকিমিয়া লোকমানিয়া সুন্নিয়া হেফজখানা ও এতিমখানায় থাকে। আর বড় সন্তান মো. ইয়াছিন (১০) একটি দোকানে কাজ করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যু

৩ ডিসেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন