Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেললেন তিনজন, বাকিরা আসলেন আর গেলেন

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০২১, ১২:০০ এএম

এক মধুর সমস্যায় মুমিনুল হক। মাঠে নামার আগে তার স্কোয়াড থেকে কেউ না কেউ সরে যান! দলপতি হওয়ার পর সেরা স্কোয়াড পাননি তিনি। আবার পেলেও মাঝপথে ছিটকে যাওয়ার ঘটনাও আছে। ফলে কাক্সিক্ষত ফল থেকে অনেক দূরে তার ও দলের অবস্থান। পারফরম্যান্স না থাকায় অধিনায়ক হিসেবেও বেশ সমালোচিত তিনি। এনিয়ে অনেক আক্ষেপ তার।

এবার জিম্বাবুয়ে সফরে দেশসেরা চার তারকা তামিম, সাকিব, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহকে একসঙ্গে পেয়েছিলেন। কিন্তু গতকাল হারারেতে তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামে বাংলাদেশ। তবে দলকে সাফল্য দেওয়ার কাজটা শুধু সাকিব-তামিমের কাজ নয়। সবাইকে নিয়ে জিম্বাবুয়েতে বিজয়ের পতাকা ওড়াতে ঐক্যর ডাকও দিলেছিলেন টেস্ট দলপতি। কিন্তু টেস্টের প্রথম দিনেই তার ঐক্যে দেখা গেল ঘাটতি।
নিজের ঐকের ডাকে নিজে সাড়া দিলেন, সেই সঙ্গে পেলেন লিটন দাস ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। বাকিরা আসলেন আর গেলেন। শুরুতে শূন্য রানে সাইফ হাসানের বিদায়ের পর সাদমান ইসলাম (২৩), নাজমুল হোসেন শান্ত (২), মুশফিকুর রহিম (১১) ও সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ৩ রান। স্রোতের বিপরীতে অধিনায়ক মুমিনুল ৭০ রান করেন। মাত্র ১৩২ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে দল যখন ঝুঁকছে, তখন ত্রাতার ভূমিকায় লিটন-মাহমুদউল্লাহ জুটি। ১৩৮ রানের জুটি গড়েন তারা। লিটন ৯৫ রানে ফিরে গেলেও মাহমুদউল্লাহ ৫৪ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেন। দিনশেষে দলীয় সংগ্রহ ৮ উইকেটে ২৯৪।
জিম্বাবুয়ের ব্লেসিং মুজরাবানি ৩টি, ভিক্টর নাউয়াচি ও ডোনাল্ড তিরিপানো ২টি। এছাড়া রিচার্ড নাগারাভা নেন ১টি উইকেট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুমিনুল হক
আরও পড়ুন